শুক্রবার, ১৯ Jul ২০১৯, ০৮:৩৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
কেন্দুয়ায় প্রধানমন্ত্রীর অর্থ সহায়তা তহবিল থেকে প্রাপ্ত চেক বিতরণ করেন -এমপি অসীম কুমার উকিল বারহাট্টায় বন্যার্ত মানুষের পাশে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু শৈলকুপায় ১ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ, থানায় মামলা সরল বিশ্বাসের ভূল,কী বোঝাতে চেয়েছেন দুদক চেয়ারম্যান! “দুর্নীতি মানে দুর্নীতি” ওবায়দুল কাদের অধ্যক্ষ আবদুল কাদের বাশঁখালীর শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ নির্বাচিত সিরাজগঞ্জে মাদক বিরোধী কুইজ প্রতিযোগিতা ও বৃক্ষরোপন কর্মসূচী পালিত কেন্দুয়ায় মোটর সাইকেলের ধাক্কায় নারীর মৃত্যু জৈন্তাপুরে এপিবিএন’র অভিযানে গাজাসহ আটক ১ সরিষাবাড়ীতে বন্যাদুর্গতদের মাঝে মেয়রের ত্রান বিতরন কেন্দুয়ায় শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় হুমায়ূন আহমেদকে স্মরণ




গফরগাঁওয়ে চোর সন্দেহে স্কুল ছাত্রকে গাছের সাথে বেঁধে পিটিয়ে হত্যা 

গফরগাঁওয়ে চোর সন্দেহে স্কুল ছাত্রকে গাছের সাথে বেঁধে পিটিয়ে হত্যা 




গফরগাঁও প্রতিনিধি।।
ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে চোর সন্দেহে রিয়াজ (১৪) নামে এক স্কুল ছাত্রকে গাছের সাথে বেঁধে পিটিয়ে হত্যা করেছে একদল লোক। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার উথুরী-ঘাগড়া টাওয়ার মোড় বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। রিয়াজ ঘাগড়া-উথুরী-ছিপান উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র। সে উথুরী গ্রামের সৌদি প্রবাসী সাইদুর রহমান শাহীনের ছেলে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে উথুরী-ঘাগড়া টাওয়ার মোড় বাজারের আশরাফুলের মনিহারী দোকানের ‘তালা ভাঙার চেষ্টার অপরাধে’ স্কুল ছাত্র রিয়াজকে আটক করে বাজারের ব্যবসায়ী আশরাফুল ও তার ভাই কামরুল এবং প্রতিবেশী রশিদ।
প্রত্যক্ষদর্শী উথুরী গ্রামের ইমন (১৮), মোতালেব (৪৮) জানায়, বাজারের ব্যবসায়ী আশরাফুল ও তার কয়েকজন সহযোগী রিয়াজকে বাজারের পাশের একটি গাছের সাথে বেঁধে বেধড়ক পেটায়। কিশোর ইয়াজ চিৎকার করে জান ভিক্ষা চাইলেও  পাষণ্ডের দল পিটিয়ে রিয়াজের মৃত্যু নিশ্চিত করে সকাল সাড়ে ৭টার দিকে তারা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। ঘটনার পর থেকে আশরাফুলসহ বাজারের বেশ কয়েকজন ব্যবসায়ী দোকান ঘর বন্ধ করে পলাতক রয়েছে।
রিয়াজের দাদী খোদেজা খাতুন (৭২) বিলাপ  করতে করতে বলে শক্রতাবশত এরা আমার নাতীকে পিটিয়ে হত্যা করেছে।
গফরগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান শামছুল আলম খোকন বলেন, রিয়াজের বিরুদ্ধে চুরি করার অনেক অভিযোগ আছে। চুরির মামলায় সম্প্রতি সে হাজতবাস করেছে।
গফরগাঁও থানার ওসি মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ খান বলেন, এ বিষয়ে তদন্ত চলছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *













©২০১৩-২০১৯ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | দুর্জয় বাংলা
Desing & Developed BY DurjoyBangla
error: Content is protected !!