রবিবার, ২৬ মে ২০১৯, ০৩:৩৩ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজঃ
লেখা ও বিজ্ঞাপন আহব্বান, দুর্জয় বাংলা পত্রিকার আয়োজনে "ঈদ সংখ্যা" প্রকাশিত হবে।
সংবাদ শিরোনামঃ
মিরপুরে সন্তানকে পাঁচতলা থেকে ছুড়ে ফেলে হত্যাকারী ‘মা’ আটক বাংলাদেশ পুলিশে কনস্টেবল পদে ৯,৬৮০ জনকে নিয়োগ বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে সৈনিক পদে নিয়োগ বাকৃবি’র নতুন ভিসি নিয়োগের আলোচনায় জনশ্রুতির শীর্ষে রয়েছেন ড.লুৎফুল হাসান।  সৌন্দর্যের লীলাভূমি সিলেটের বিছনাকান্দি গোয়াইনঘাট উন্নয়ন ফোরামের বিভিন্ন আয়োজনে ইফতার মাহফিল সম্পন্ন পুলিশ মানুষের বন্ধু বলে বকশীগঞ্জে ৩টি চোড়াই গরু উদ্ধার আন্তঃজেলা পুলিশ সুপার হামদ/নাত,ক্বিরাত ও আযান প্রতিযোগীতার অনুষ্ঠানে-শিক্ষামন্ত্রী ঝিনাইদহের মহেশপুরে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক শেরপুরে রেজা ফাগুন হত্যার বিচার দাবীতে মানববন্ধন ও ৫ দিনের কর্মসূচী ঘোষণা।  




ছাতকে ২৭ দিনের সন্তানকে বালতির পানিতে চুবিয়ে মারলেন মা

ছাতকে ২৭ দিনের সন্তানকে বালতির পানিতে চুবিয়ে মারলেন মা




বিশেষ প্রতিনিধি::মায়ের কোল সন্তানের জন্য পৃথিবীর সবচেয়ে নিরাপদ আশ্রয়স্থল। নিজের সবটুকু দিয়ে একজন মা তার সন্তানকে লালন-পালন করেন। তবে সেই মা-ই যখন সন্তানের মৃত্যুর কারণ হয় তখন অনেক প্রশ্নই উঁকি দেয় সবার মনে।
সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলায় ২৭ দিন বয়সী নিজের সন্তানকে বালতির পানিতে চুবিয়ে হত্যা করেছেন মা। বুধবার শিশুকন্যার মা ইয়াসমিন বেগমকে সুনামগঞ্জ আদালতে পাঠায় পুলিশ। আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়ে নিজের ২৭ দিন বয়সী শিশুকন্যাকে হত্যার কথা স্বীকার করেন ইয়াসমিন।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার রাতে ছাতক উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়নের দক্ষিণ চাকলপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রাতে শিশুকন্যার বাবা গাড়িচালক আব্দুস শহিদ বাড়িতে এসে বিছানায় সন্তানকে না দেখে স্ত্রীকে সন্তানের কথা জিজ্ঞাসা করেন। এ সময় তার স্ত্রী কোনো জবাব না দিলে রান্না ঘরে গিয়ে বালতির পানিতে শিশুকন্যাকে ডুবন্ত অবস্থায় দেখতে পান। পরে স্বামী আব্দুস শহিদ পুলিশকে খবর দেন।
এ ঘটনায় শিশু কন্যার পিতা আব্দুস শহিদ বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতে ছাতক থানায় একটি হত্যা মামলা(নং-১২) দায়ের করেন।
পরে শিশুকন্যার মা ইয়াসমিন বেগম, চাচি চামেলি বেগম, চাচা সুলতান মিয়া ও দাদা আসক আলীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
বুধবার শিশুটির মা ইয়াসমিন বেগমকে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়। আদালতে কন্যাশিশুকে হত্যার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেন মা ইয়াসমিন বেগম। জবানবন্দি শেষে মা ইয়াসমিন বেগমকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালতের বিচারক।
ছাতক থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমাদের প্রাথমিক ধারণা স্বামী-স্ত্রীর কলহের জের ধরে এ হত্যাকান্ড ঘটেছে। এ ঘটনায় শিশুর বাবা মামলা করেছেন। ওই মামলায় শিশুটির মাকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়। আদালতে ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে জবানবন্দি দিয়ে শিশুকে হত্যার কথা স্বীকার করেন মা ইয়াসমিন বেগম।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *













©২০১৩-২০১৯ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | দুর্জয় বাংলা
Desing & Developed BY DurjoyBangla