শুক্রবার, ১৯ Jul ২০১৯, ০৮:৩০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
কেন্দুয়ায় প্রধানমন্ত্রীর অর্থ সহায়তা তহবিল থেকে প্রাপ্ত চেক বিতরণ করেন -এমপি অসীম কুমার উকিল বারহাট্টায় বন্যার্ত মানুষের পাশে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু শৈলকুপায় ১ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ, থানায় মামলা সরল বিশ্বাসের ভূল,কী বোঝাতে চেয়েছেন দুদক চেয়ারম্যান! “দুর্নীতি মানে দুর্নীতি” ওবায়দুল কাদের অধ্যক্ষ আবদুল কাদের বাশঁখালীর শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ নির্বাচিত সিরাজগঞ্জে মাদক বিরোধী কুইজ প্রতিযোগিতা ও বৃক্ষরোপন কর্মসূচী পালিত কেন্দুয়ায় মোটর সাইকেলের ধাক্কায় নারীর মৃত্যু জৈন্তাপুরে এপিবিএন’র অভিযানে গাজাসহ আটক ১ সরিষাবাড়ীতে বন্যাদুর্গতদের মাঝে মেয়রের ত্রান বিতরন কেন্দুয়ায় শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় হুমায়ূন আহমেদকে স্মরণ




জামালগঞ্জে সুদের ব্যবসা জমজমাট, হতদরিদ্র পরিবার বিপাকে

জামালগঞ্জে সুদের ব্যবসা জমজমাট, হতদরিদ্র পরিবার বিপাকে




বিশেষ প্রতিনিধি :
সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলা জুড়ে বেড়েই চলছে জমজমাট সুদ ব্যবসা। মানুষকে নিঃস্ব করার অন্যতম এ ব্যবসা জামালগঞ্জ উপজেলার সকল গ্রাম গুলোতে ছড়িয়ে পড়েছে। সুদ ব্যবসা মহামারী আকার ধারণ করেছে।

সুদ ব্যবসায়ীদের রোষানলে পড়ে অসহায় হয়ে পড়েছে সমাজের নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের সাধারণ মানুষগুলো। উপজেলার অনেক জায়গায় কয়েকজন মিলে বিভিন্ন নামে সমিতি গঠন করেছে।কিন্তু এদের কোন সরকারি অনুমতি নেই।

কোন এনজিওর সাথে ও তাদের কোন সংশ্লিষ্টতা খুজে পাওয়া যায়নি।কিন্তু দিনের পর দিন কোন বাঁধা বিপত্তি ছাড়াই চালিয়ে যাচ্ছে সুদের ব্যবসা।এসব ব্যবসার সাথে জড়িয়ে পড়ছে সমাজের মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত পরিবার গুলো।বিপদ-আপদে অনেকটাই বাধ্য হয়ে সুদের উপর টাকা নিয়ে থাকেন।পরে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্য সুদ ও আসল টাকা পরিশোধ করতে না পারলেই সুদ ব্যবসায়ীদের হাতে লাঞ্ছনার স্বীকার হতে হয়।

জানা গেছে,উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন,গ্রাম,পাড়া,মহল্লায় নারী ও পুরুষ সুদ ব্যবসায়ীরা মহাজনি প্রাথায় চালচ্ছেন সুদ ব্যবসা।এসব সুদ ব্যবসায়ীদের চক্রবৃদ্ধি সুদের রোষানলে দিশেহারা হয়ে পড়েছে বিভিন্ন ইউনিয়ন ও গ্রাম অঞ্চলের সাধারণ অসহায় মানুষ।আর্থিক প্রয়োজনে বেকায়দায় পড়ে এসব সুদ ব্যবসায়ীদের খপ্পরে পড়েছে মধ্যবিত্ত কৃষক, বর্গাচাষী, স্বল্প আয়ের লোকজনসহ অনেকে।কেউ ব্যবসা করতে, বিদেশগমনে,সিএনজি ক্রয়ে বা বিভিন্ন অসুবিধায় সুদ ব্যবসায়ীদের নিকট চড়া সুদে টাকা নিয়ে ১০০/৩০০ টাকার সাদা ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর বা টিপ দিয়ে টাকা নিতে হয় । আর ওই সব সাদা ষ্ট্যাম্পে সাক্ষী নেওয়া হয় সুদ ব্যবসায়ীদের পছন্দমত ব্যক্তিদের এবং ইচ্ছামত তারা ষ্ট্যাম্প পূরণ করে রাখেন কিংবা প্রয়োজন মত লেখার জন্য ফাঁকা রাখেন।আর বেকায়দায় পড়া ব্যক্তিদের অনেকে সুদ ব্যবসায়ীদের চাপে বন্ধক রাখতে জমির দলিলপত্র, স্বর্ণালংকার, চাকরিজীবীদের মাসিক বেতনের চেকও বন্ধক রাখতে বাধ্য হচ্ছেন সুদ ব্যাবসায়ীদের কাছে।

মাসিক,সাপ্তাহিক এমনকি দৈনিক ভিত্তিতে নগদ ঋণ দিয়ে দেড় থেকে দুই গুন মুনাফা লাভ করে। একদিকে যেমন সুদ ব্যবসায়ীরা সম্পদের পাহাড় গড়ছেন অন্যদিকে সাধারণ ও মধ্যবিত্ত আয়ের মানুষ দিন দিন গরিব ও ভূমিহীনে পরিণত হচ্ছে।

 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকেই জানান,সুদের ব্যবসা দিনের পর দিন বেড়েই চলছে।এই ব্যবসায় পুরুষের পাশাপাশি মহিলা সুদ ব্যবসায়ী ও আছে। সুদের টাকা পরিশোধ করতে না পারলে বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে সুদের টাকা আদায় করেন।এই ব্যবসার মাধ্যমে টিনের ঘর থেকে দু’তলা বাড়ি পর্যন্ত বানিয়েছেন।অথচ সুদ ব্যবসায়ীদের এমন কর্মকান্ডে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষেরও নেই কোন পদক্ষেপ। যে কারনে ঋনের নামে এসব শোষণ বেড়েই চলছে।

সমাজের এই ক্ষতিকর সমাজ-বিরোধী অবৈধ সুদ ব্যবসা উচ্ছেদে এলাকাবাসীর দাবি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ও প্রশাসন এ ব্যাপারে জরুরী পদক্ষেপ নিবেন।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *













©২০১৩-২০১৯ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | দুর্জয় বাংলা
Desing & Developed BY DurjoyBangla
error: Content is protected !!