শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ০৫:৫৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
জেঠা কর্তৃক মার্কেট দখলের চক্রান্ত: বঞ্চিত হওয়ার আশঙ্কায় শঙ্কিত ওয়ারিশরা ঢাকা-রাজশাহী রুটে বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নালিতাবাড়ী উপজেলায় জমির বিরোধে চেয়ারম্যানের গুলিতে কৃষক নিহত, আটক-৫।  ম্যানেজিং কমিটি কর্তৃক প্রধান শিক্ষককে বরখাস্ত করার প্রতিবাদে কলমাকান্দায় মানববন্ধন সৈয়দপুরে দিনব্যাপী ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত গ্রাম আদালতের বার্তা মাঠ-পর্যায়ে ছড়িয়ে দিতে হবে- শওকত ওসমান, উপ-পরিচালক।  নড়াইল ট্রাফিকের প্রাক্তন সার্জেন্ট রফিকুল রক্ষক হয়ে ভক্ষকের ভূমিকায় ২০বছর পর কারাগারে! বাবার সহকর্মীদের চোর বলতে বাধলো না শমী কায়সারের!  দুর্গাপুরে যুবতী নারী ধর্ষণের অভিযোগে মামলা, হুমকীতে বিপাকে বাদীর পরিবার।  প্রধানমন্ত্রী দপ্তরের কর্মচারীসহ শৈলকুপার ৩জনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজী মামলা




দশটা টাহা দে কিছু খাইমু-খালু পাগলা

দশটা টাহা দে কিছু খাইমু-খালু পাগলা




জাহাঙ্গীর তালুকদার (হালুয়াঘাট) প্রতিনিধিঃ হালুয়াঘাটের ৮নং নড়াইল ইউনিয়ের কুমুরিয়া গ্রামের বাজারে থাকে খালু পাগলা।এক নামেই পরিচিত খালু পাগলা,আসল নাম জানে না কেউ।কুমুরিয়া বাজারে  প্রায় ১০ বছর ধরে

তার রাত কাটে রাস্তায় কিছু দিন কার ও ঘরের বারান্দায়।তবে জানা যায়-তার বাড়ি কিশোরগঞ্জ।

তবে কি সেটা সত্যই নাকি মিথ্যা সেটা জানেন না কেউ।তিনি সব কিছু লেখতে পারে হাতের লেখা বলে দেয় তিনি একজন শিক্ষিত মানুষ। প্রতিদিন মানুষের কাছে ৫-১০ টাকা চেয়েই জীবণ চলে তার। হাতে একটি বস্ততা ও লাটি নিয়ে সারা দিন ঘুড়ে বাজারে বা দোকানে যা কেই সামনে পাই তাকেই বললেন খালু ১০টা টাকা দে কিছু খাইমু রুটি কিনে দে। এভাবেই চলে তার জীবণ,কেউ জানে না তার আসল ঠিকানা।এলাকাবাসী জানাই-খালু পাগলা মানুষের কাছে টাকা চায় আর সারা দিন যে টাকা পায় সেই টাকা কিছু কিনে খাই আর বাকি টাকা মসজিদের দরজায় সামনে রেখে আসে। আজ পযর্ন্ত কার ও কোনো ক্ষতি করে নাই,সে তার মতো চলছে।তবে তাকে দেখার মতো কেউ নেই।হয় তো কারো সাহায্য পেলে তার জীবনটা ভালো ভাবে চলতো।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *













©২০১৩-২০১৯ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | দুর্জয় বাংলা
Desing & Developed BY DurjoyBangla