রবিবার, ২১ Jul ২০১৯, ১২:৪১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
মদনে নৌকা থেকে পড়ে গিয়ে সবজি বিক্রেতার মৃত্যু জামালগঞ্জে বজ্রপাতে নিহত দুই পরিবারকে আর্থিক সহায়তা প্রদান সুনামগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে পুড়ানো হলো তিনটি ড্রেজার মেশিন জামালগঞ্জে জন্মনিবন্ধন জালিয়াতি ও অশ্লীল ভিডিও রাখার দায়ে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা সৈয়দপুরে অসামাজিক কার্যকলাপের দায়ে ৩ জনের বিনাশ্রম কারাদন্ড শহিদুল ইসলাম ডিগ্রী কলেজ ২য় বার ঝিনাইদহ জেলার শ্রেষ্ঠ কলেজ নির্বাচিত নীলফামারীতে যুব মহিলা লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত রাজারহাটে অবৈধ কারেন্ট জাল জব্দ আটক- ২ নেত্রকোনার হাওরাঞ্চলে একটি মৎস্য গবেষনা ইনষ্টিটিউট গড়ে তোলা হবে- মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু সাতকানিয়া- লোহাগড়া আপামর জনগনের পাশ্বে সুখে দুঃখে আছি থাকব,ড. আবু রেজা নদবী




দুগার্পুরে স্কুলের নলকূপ স্থাপনে প্রধান শিক্ষকের নিকট প্রথম শ্রেণি ছাত্রীর আবেদন দাখিল

দুগার্পুরে স্কুলের নলকূপ স্থাপনে প্রধান শিক্ষকের নিকট প্রথম শ্রেণি ছাত্রীর আবেদন দাখিল




কলিহাসান,দুগার্পুর(নেত্রকোনা)প্রতিনিধি:
নেত্রকোনার দুগার্পুরে সরকারী প্রাইমারী স্কুলে নলকূপ পুনঃস্থাপনের জন্যে প্রধান শিক্ষকের নিকট লিখিত আবেদন করেছে ওই বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির শিক্ষাথর্ী অহনা।
সূত্রে জানা যায়, বালিচান্দা আলাউদ্দিন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নলকূপটি দীর্ঘধরে অকেজো অবস্থায় পড়ে রয়েছে। এতে ওই স্কুলের শিক্ষাথর্ীদের পানি খেতে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। এই প্রচন্ড গরমে প্রতিবেশীর বাড়ীতে গিয়ে পানির চাহিদা মিঠাতে হচ্ছে শিক্ষাথর্ীদের। এতে নানান ধরণের প্রতিবন্ধকতার সন্মুখীন হচ্ছে শিশুরা। প্রতিবেশীর নলকূপে ১৮০জন শিক্ষাথর্ীর পানির চাহিদা সংকুলান না হওয়ায় প্রথম শ্রেণীর খুদে শিক্ষাথর্ী সাবিহা জান্নাত অহনা(৫)ওই প্রতিষ্টানের প্রধান শিক্ষকের নিকট ১৮মেএকটি আবদনপত্র দাখিল করে। আবেদনপত্রটি স্কুলের সহকারী শিক্ষক সাফিনা আক্তার গ্রহণ করেন। আবেদনটির সত্যতা নিশ্চিত করে স্কুলের প্রধান শিক্ষক আঃ বারী প্রতিবেদককে বলেন,আমি প্রথম শ্রেণির শিশু অহনার একটি আবেদন পেয়েছি। দু্রত সময়ে স্কুলের নষ্ট হওয়া টিউবওয়েলটি মেরামত করা হবে এবং পাশে একটি সাবমারসিবল থাকায় পানি উঠে না,বিকল্প ব্যবস্থা করা হবে অচিরেই। ওই স্কুলের মেধাবী খুদে শিক্ষাথর্ী সাবিহা জান্নাত অহনা’র নিকট মুঠোফোনে জানতে চাইলে বলেন, আমার ক্লাস রোল-১।আমি প্রতিদিন স্কুলে যাই। ইস্কুলে যাওয়ার সময় আমার পায়ে অনেক(পেক)কাঁদা লাগে,আমি কাঁদা ধুঁইতে প্রতিবেশীর বাড়িতে যাই প্রতিদিন। আমার খুব খারাপ লাগে স্যার,আরেক জনের বাড়িতে গিয়ে কতদিন হাত,পা ধুঁয়া ও খাওয়া যায়। আমি স্যারের কাছে চিটি লেখছি,কল তারা তারি হয়ে যাবে। শিশুটির বাবা সিরাজুল ইসলাম সজিম এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, সাবিহা জান্নাত অহনার জানার কৌতুহল বেশী। সে বেশী প্রশ্ন করতে ভালবাসে। মাঝে মধ্যে আমি তাঁর উত্তর দিতে দ্বিধাদন্দ্বে ভুগী। সে স্কুলে নলকূপের চিঠি লিখে দিয়ে আসছে এবং আমাকে দেখিয়েছে চিঠিটি। আমি খুব খুশি হয়েছি। সে ক্লাসের ফাষ্ট। ও মেধায়,বুদ্ধিতে অনেক দূর এগিয়ে যেতে সকলের দোয়া প্রত্যাশা করছি।
উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবু তাহের ভূইয়া’র নিকট এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, স্কুলের টিউবওয়েলটি নষ্ট অবস্থায় আছে কিনা খবর নিচ্ছি। অবশ্যই পানি সমস্যার সমাধান করা হবে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *













©২০১৩-২০১৯ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | দুর্জয় বাংলা
Desing & Developed BY DurjoyBangla
error: Content is protected !!