মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯, ১০:১৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
জামালগঞ্জে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্ট্যান্ডসহ তিনশত জাতীয় পতাকা বিতরণ জামালগঞ্জে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ষ্টীল আলমিরা, চেয়ার ও টেবিল বিতরণ সরকারি ১৫০ টন চাল আত্মসাতের মামলায় খাদ্য গুদামের কর্মকর্তা কারাগারে।  সন্ত্রাসীরা ছাত্রলীগ নেতার বাড়ি হামলা লুটপাট কালে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে মাথা থেঁতলে দেয়।    গফরগাঁওয়ে ভাড়া বাড়িতে চেয়ারম্যানের লাশ, বধ্যভূমির খালে নবজাতকের লাশ উদ্ধার। ২৫ মার্চ মানব সভ্যাতার ইতিহাসে এক কলঙ্কিত দিন.-একরামুল করিম সুশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে ছাত্রছাত্রীদের দেশ গঠনে ভূমিকা রাখতে হবে: ডা. শাহাদাত হোসেন ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে ইসি,ভোটগ্রহণ ৫ মে।  খাদ্যে ভেজাল মাদকের চেয়েও ভয়াবহ, তাই খাদ্যে ভেজালকারীর শাস্তি মৃত্যুদন্ড হওয়া উচিত ডলুরা শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত




মুক্তিযোদ্ধার কন্যা আজেদা কানিজকে সংরক্ষিত আসনে এমপি করার দাবী এলাকাবাসীর

মুক্তিযোদ্ধার কন্যা আজেদা কানিজকে সংরক্ষিত আসনে এমপি করার দাবী এলাকাবাসীর




দুর্জয় বাংলা ডেস্কঃ নেত্রকোনায় মুক্তিযোদ্ধার কন্যা ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় মহিলা বিষয়ক উপকমিটির সদস্য নারীনেত্রী আজেদা কানিজকে সংরক্ষিত আসনে এমপি করার জন্য এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে দাবী উঠেছে। তারা বলছেন, আওয়ামী লীগের একজন নিবেদিত কর্মী, পরোপকারী ও এলাকায় সুপরিচিত আজেদা কানিজকে সংরক্ষিত আসনে এমপি নির্বাচিত করা হলে এলাকার অনেক উন্নয়ন হবে এবং আপামর জনতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ থাকবে।
জানা গেছে, সুশিক্ষিত আজেদা কানিজ দীর্ঘদিন যাবত আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে সক্রিয় থেকে দলীয় কর্মকান্ডসহ এলাকার নির্যাতিত, সুবিধা বঞ্চিত ও অসহায় নারী-পুরুষের জন্য সেবামূলক কাজ করে যাচ্ছেন। তার পিতা এ. এম আহমেদ হোসেন। তিনি একজন মুক্তিযোদ্ধা ও সেন্ট্রাল কো-অপারেটিভ ব্যাংক লিমিটেডের সাবেক জিএম। তার স্বামী আব্দুল্লাহ আল বাকী সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও বর্তমান আওয়ামী লীগ নেতা। মুক্তিযোদ্ধা পিতার সন্তান আজেদা কানিজ ছাত্রজীবন থেকেই বঙ্গবন্ধুর চেতনাকে বুকে ধারন করে বেড়ে উঠেছেন। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় মহিলা বিষয়ক উপকমিটির সদস্য।
এছাড়া নেত্রকোনার কেন্দুয়া পৌরসভার সাবেক কমিশনার, বাংলাদেশ কমিশনার এসোসিয়েশনের সাবেক যুগ্ম সদস্য সচিব ও কেন্দুয়া উপজেলা শিক্ষা কমিটির সাবেক সদস্যসহ বিভিন্ন সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন আজেদা কানিজ।
নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়নের কাউরাট গ্রামের সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও বর্তমান আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল বাকীর স্ত্রী নারীনেত্রী আজেদা কানিজ। আজেদা কানিজ এবং তার স্বামী আব্দুল্লাহ আল বাকী একই গ্রামের মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক (এমএনএ) ও কয়েকবারে নির্বাচিত সংসদ সদস্য এডভোকেট এম জুবেদ আলীর হাত ধরে রাজনৈতিক পথচলা শুরু করেন। ২০০৮ সালে কেন্দুয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ও নেত্রকোনা জেলা পরিষদ নির্বাচনে সংরক্ষিত আসনের নারী সদস্যপদে প্রার্থী হয়ে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করেছেন আজেদা কানিজ। সর্বশেষ ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নেত্রকোনা-৩ (কেন্দুয়া-আটপাড়া) আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন চেয়ে বঞ্চিত হন তিনি। দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হওয়ার পরও হাল ছাড়েননি। দলীয় প্রার্থীর ও নৌকা প্রতীকের পক্ষে নির্বাচনী মাঠে কাজ করেছেন এবং আওয়ামী লীগের সভাপতি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার প্রতি অগাধ আস্থা রেখে দলের জন্য তিনি নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। বর্তমানে সংরক্ষিত মহিলা আসনে এমপি হওয়ার জন্য স্থানীয় ও কেন্দ্রীয়ভাবে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন।
তিনি জামায়াত জোট সরকারের আমলে তৎকালীন সরকার বিরোধী আন্দোলনে ঢাকা রাসেল স্কয়ারে যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা রহমানসহ পুলিশের কাছে আটক হয়েছিলেন। ২০০১ সালে বিএনপি-জামাত জোট ক্ষমতায় আসার পর সরকার দলীয় ক্যাডাররা আজেদা কানিজের বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট করে এবং তার স্বামীসহ পরিবারের লোকজন জননিরাপত্তা মামলার আসামী হয়ে হয়রানি ও নির্যাতনের শিকার হয়।
এ বিষয়ে নারীনেত্রী আজেদা কানিজের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, দল ও এলাকার সাধারণ মানুষের জন্য সব সময় নিজেকে নিয়োজিত রেখে কাজ করে যাচ্ছি। সংরক্ষিত আসনে কাকে এমপি নির্বাচিত করবেন, সেটা আমাদের দলের নেত্রী বুঝবেন। তবে আমি চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমি এমপি হলেও এলাকার উন্নয়ন ও জনসেবায় কাজ করব এবং না হলেও করব ইনশাল্লাহ।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *













©২০১৩-২০১৯ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | দুর্জয় বাংলা
Desing & Developed BY DurjoyBangla