বুধবার, ২৬ Jun ২০১৯, ১২:০০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে মহিলা ইউপি সদস্য বিউটি আক্তার কুট্টিকে কুপিয়ে হত্যা সুনামগঞ্জে দুই উপজেলায় দুই লাশ উদ্ধার সুনামগঞ্জে সপ্তম শ্রেণির স্কুলছাত্রী অপহরণের ঘটনায় নারী আসামী গ্রেফতার রাজারহাটে স্কুল শিক্ষক মনিবুলের লটকন চাষে সাফল্য নীলফামারীতে নতুন জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরীর যোগদান জৈন্তাপুরের স্কুল ছাত্র শামীম বাঁচতে চায় ডিআইজি মিজানুর রহমানকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। মুক্তাগাছা টু ময়মনসিংহ রুটে বিআরটিসি বাস সার্ভিসের উদ্বোধন করলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী  পিসি রোড নিমতলায় ৭৫ কোটি টাকার জায়গা উদ্ধার করলো চসিক ভ্রাম্যমান আদালত আওয়ামীলীগ এই উপমহাদেশের প্রাচীন সুসংগঠিত রাজনৈতিক দল, কেউ ধ্বংস করতে পারবে না-শেখ হাসিনা। 




ময়মনসিংহে চাঁদাবাজি ও অস্ত্র মামলায় শহর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ৩দিনে রিমান্ডে। 

ময়মনসিংহে চাঁদাবাজি ও অস্ত্র মামলায় শহর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ৩দিনে রিমান্ডে। 




বিভাগীয় ব্যুরো অফিস,ময়মনসিংহঃ

ময়মনসিংহ শহর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আরিফকে বৃহস্পতিবার অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেফতার করেছে ময়মনসিংহ ডিবি পুলিশ।

তাকে শুক্রবার চাঁদাবাজি ও অস্ত্র মামলায় রিমান্ডের আবেদন সহ আদালতে পাঠানো হলে আদালত তাকে তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন বলে ডিবির ওসি শাহ কামাল আকন্দ জানান।

সূত্রে জানা গেছে, জেলা যুবলীগ সদস্য রেজাউল করিম রাসেল হত্যা মামলায় আরিফকে প্রধান করে মামলা দায়ের হয়। এ মামলায় আরিফ উচ্চ আদালত থেকে আগাম জামিনে আসে।

এর আগে ময়মনসিংহ সদর সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসে দলিল লেখকদের উপর চাঁদাবাজির অভিযোগে দলিল লেখক মোঃ আবু হানিফ কোতোয়ালী মডেল থানায় ২৭/০৫/১৯ ইং তারিখে ১১৩ নং মামলা দায়ের করে। উক্ত মামলায় তিনজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

চাঁদাবাজির ঐ মামলায় শুক্রবার পুলিশ আরিফকে শহরের জিরো পয়েন্ট এলাকা থেকে একটি বিদেশী অস্ত্র, চার রাউন্ড গুলি ও ম্যাগজিনসহ গ্রেফতার করে। অস্ত্র ও গুলি উদ্ধারের ঘটনায় পুলিশ ছাত্রনেতা আরিফের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা নং ১৩৭ তাং-৩১/০৫/১৯ ইং দায়ের করেন।

শুক্রবার পৃথক দুটি মামলায় পুলিশ রিমান্ড আবেদনসহ আরিফকে আদালতে প্রেরণ করলে আদালত তাকে চাঁদাবাজির মামলায় একদিন ও অস্ত্র মামলায় দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য দীর্ঘদিন ধরেই সদর সাব রেজিষ্ট্রি অফিসে চাঁদাবাজি হয়ে আসছে একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী তাদের চাঁদা না দিলে মারধর এমনকি হত্যা করে লাশ গুমের হুমকি দেয়া হতো। সর্বশেষ গত ২৭/৫/১৯ ইং তারিখে চাঁদা দাবী করলে চাঁদা না দেয়ায় মারতে এগিয়ে যায় সন্ত্রাসী চাঁদাবাজরা। খবর পেয়ে ডিবির ওসি’র নেতৃত্বে পুলিশ দল ছুটে আসে এবং ঘটনাস্থল থেকে মাকতুম হোসাইন, মহিউল আউয়াল রানা ও রাকিবুল আলমকে গ্রেফতার করে। অন্যরা পালিয়ে যায়। এব্যাপারে চিহ্নিত ১১ জন ও অজ্ঞাত ২০/২৫ জনের বিরুদ্ধে কোতোয়ালী থানায় ওই দিনেই ১১৩ নং মামলটি হয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *













পিকনিক বুকিং চলছে!

©২০১৩-২০১৯ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | দুর্জয় বাংলা
Desing & Developed BY DurjoyBangla
error: Content is protected !!