মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯, ১০:১৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
জামালগঞ্জে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্ট্যান্ডসহ তিনশত জাতীয় পতাকা বিতরণ জামালগঞ্জে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ষ্টীল আলমিরা, চেয়ার ও টেবিল বিতরণ সরকারি ১৫০ টন চাল আত্মসাতের মামলায় খাদ্য গুদামের কর্মকর্তা কারাগারে।  সন্ত্রাসীরা ছাত্রলীগ নেতার বাড়ি হামলা লুটপাট কালে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে মাথা থেঁতলে দেয়।    গফরগাঁওয়ে ভাড়া বাড়িতে চেয়ারম্যানের লাশ, বধ্যভূমির খালে নবজাতকের লাশ উদ্ধার। ২৫ মার্চ মানব সভ্যাতার ইতিহাসে এক কলঙ্কিত দিন.-একরামুল করিম সুশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে ছাত্রছাত্রীদের দেশ গঠনে ভূমিকা রাখতে হবে: ডা. শাহাদাত হোসেন ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে ইসি,ভোটগ্রহণ ৫ মে।  খাদ্যে ভেজাল মাদকের চেয়েও ভয়াবহ, তাই খাদ্যে ভেজালকারীর শাস্তি মৃত্যুদন্ড হওয়া উচিত ডলুরা শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত




হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার শাস্তির দাবিতে সুনামগঞ্জে মানববন্ধন

হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার শাস্তির দাবিতে সুনামগঞ্জে মানববন্ধন




বিশেষ প্রতিনিধি:: হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী মহিউদ্দিনকে স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার জসিম উদ্দিন কর্তৃক হাতকড়া পড়ানোর ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন সুনামগঞ্জ জেলা এলজিইডির কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ।
মঙ্গলবার (১২ মার্চ) জেলা এলজিইডি ভবনের সামনের সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে বেলা ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত ঘটনার প্রতিবাদে বাহুবল উপজেলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার জসিম উদ্দিনের শাস্তির দাবিতে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন এলজিইডির কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ।মানববন্ধনে জেলা ও বিভিন্ন উপজেলা এলজিইডির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অংশগ্রহণ করেন।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ জেলা এলজিইডির সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী আনোয়ার হোসেন, সংহতি জানিয়ে মানববন্ধনে একাত্মতা পোষণ করে বক্তব্য রাখেন, জেলা গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আবিল আয়াম, জেলা বিএডিসির সহকারী প্রকৌশলী খালিকুজ্জামান কল্লোল।
অন্যান্যদের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ জেলা এলজিইডির সহকারী প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম, সদর উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী আনোয়ার হোসেন, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী শামীম হাসান, দোয়ারাবাজার উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী হরিজিত সরকার, তাহিরপুর উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী মো. সাইদুল্লাহ, শাল্লা উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী মাহমুদুর রহমান, হিলিপ প্রকল্পের জেলা সমন্বয়কারী বুলবুল আহমেদ, জেলা এলজিইডির উচ্চমান সহকারী মো. সিদ্দিকুর প্রমুখ।
এসময় বক্তারা বলেন, ‘এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী প্রথম শ্রেণির একজন সরকারি কর্মকর্তা। আদালতে অভিযুক্ত হওয়ার আগে ও কর্তৃপক্ষের অনুমিত ছাড়া সরকারি কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তারের বিধান না থাকলেও বাহুবল উপজেলা নির্বাহী অফিসার ক্ষমতার অপব্যবহার করে আইন অমান্য করে উপজেলা প্রকৌশলীকে হাতকড়া পড়িয়েছেন। অনিয়ম-দুর্নীতিতে সহযোগিতা না করায় পুলিশ ডেকে নিয়ে উপজেলা প্রকৌশলীকে হাতকড়া পড়ান উপজেলা নির্বাহী অফিসার।
বক্তারা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অন্যায় কাজের প্রতিবাদ জানিয়ে তার শাস্তির দাবি করেন।
প্রসঙ্গত, ৬ মার্চ বেলা ১১ টায় বাহুবল স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার জসিম উদ্দিন পুলিশ ডেকে নিয়ে উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী মহিউদ্দিনকে হাতকড়া পড়ান। এ ঘটনায় এলজিইডির কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *













©২০১৩-২০১৯ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | দুর্জয় বাংলা
Desing & Developed BY DurjoyBangla