13.7 C
New York
সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১

অটো চালক বাবু খুনের মামলার আসামীরা গ্রেফতার হয়নি তদন্তে মাঠে নেমেছেন এসপি

সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, বিশেষ প্রতিনিধি

বিজ্ঞাপন

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কেন্দুয়া উপজেলার সান্দিকোণা ইউনিয়নের সাহিতপুর বাজার এলাকায় প্রতিপক্ষের হামলায় অটো চালক ইমরান হোসেন বাবু খুনের মামলার আসামীরা গ্রেফতার হয়নি। মঙ্গলবার দুপুরে এ মামলার সরেজমিনে তদন্তে এসেছেন নেত্রকোণার পুলিশ সুপার (এসপি) আকবর আলী মুন্সি।

বিজ্ঞাপন

গত ২২ জুলাই বৃহস্পতিবার বিকেলে সান্দিকোনা ইউনিয়নের চেংজানা গ্রামের শামিম মিয়ার ছেলে অটো চালক ইমরান হোসেন বাবু ও আটিগ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে বাইসাইকেল চালক শরিফের মধ্যে রাস্তার সাইড দেওয়াকে কেন্দ্র করে তর্কাতর্কীতে লিপ্ত হয়।

স্থানীয় লোকজন ঘটনাটি মিমাংসা করে দিলেও আটি গ্রামের শরিফ ও তার স্বজনদেরকে নিয়ে এসে বাবুর উপর ধাঁরালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায় এ ঘটনায় ইমরান হোসেন বাবু ও এখলাছ উদ্দিন আহত হয়। আশংকা জনক অবস্থায় ইমরান হোসেন বাবু ও গিয়াস উদ্দিনের ছেলে এখলাছ উদ্দিনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে কর্তব্যরত চিকিৎসক ইমরান হোসেন বাবুকে মৃত বলে ঘোষনা করেন। এ ঘটনায় নিহত বাবুর বাবা শামিম মিয়া বাদী হয়ে আব্দুল মজিদের ছেলে শরিফকে প্রধান আসামী করে ২০ জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাত নামা আরো ১০/ ১২ জনের বিরুদ্ধে ২৫ জুলাই কেন্দুয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ আটিগ্রামের রুকন মিয়ার ছেলে শামিকে ঘটনার দিন গ্রেফতার করলেও হত্যার মামলার বাকি আসামীরা এখনও অধরা। এদিকে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি শান্ত রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। তদন্তে আসা পুলিশ সুপার আকবর আলী মুন্সি ইমরান হোসেন বাবু হত্যা মামলার সব আসামীদের খোঁজে বের করে অবিলম্বে গ্রেফতারের নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে তিনি খুনের পর প্রতিপক্ষের লোকদের বাড়িতে লুটপাটের ঘটনা না হওয়ায় পুলিশকে ধন্যবাদ জানান। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস.আই নোমান সাদেকিন বলেন, খুব দ্রুত আসামীদের গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করার চেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছি।

আরও পড়ুন: নাগরপুরে ভাইয়ের হাতুড়ি পেটায় বোন হাসপাতালে ভর্তি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

বিজ্ঞাপন
x