13.7 C
New York
শনিবার, মে ৮, ২০২১

অনৈক্য গোঁছাতে সাংবাদিক সংগঠনগুলোকে নিবন্ধনের আওতায় আনা উচিত

স্টাফ রিপোর্টা

বিজ্ঞাপন

সাংবাদিক সংগঠনগুলো কোন অধিদপ্তর নিয়ন্ত্রন করে? জাতীয় গণমাধ্যম সপ্তাহে ৫০ বছরের না বলা যত কথা আজো রয়ে গেছে অগোচরে। তিলে তিলে আজ তা চরম বিস্ফোরনে রুপ নিচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

দেশের বিভিন্ন জেলা/উপজেলায় একাধিক প্রেসক্লাবের সৃষ্টি হয়ে বিষফোঁড়ায় রুপ নিয়েছে। প্রয়োজন নিয়ন্ত্রণ।

জানেনতো; দেশের বিভিন্ন অধিদপ্তরের আওতাধীন সংগঠনগুলোকে স্বস্ব অধিদপ্তর নিয়ন্ত্রণ ও দেখভাল করে তাদেরকে প্রশিক্ষনসহ বিভিন্ন ভাবে স্বাবলম্বী করে থাকে। কিন্তু সাংবাদিক সংগঠনগুলোকে কেউ নিয়ন্ত্রণ করেনা, এটি যেন আজ অভিভাবকহীন একটি গোষ্ঠী।

বিজ্ঞাপন

তথ্যমতে, দেশের যুব সংগঠনগুলো যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর, সমাজসেবা সংগঠনগুলোকে সমাজসেবা অধিদপ্তর, কৃষি সংগঠনকে কৃষি অধিদপ্তর, মৎস্য সংগঠনকে মৎস্য অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য সেবাধর্মী সংগঠনকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, সমবায় সংগঠনকে সমবায় অধিদপ্তর নিবন্ধন ও নিয়ন্ত্রন করে থাকে।

দেশের সাংবাদিক সংগঠনগুলোকে নিয়ন্ত্রণ না করার ফলে সংগঠনসমুহের মাঝে চরম বিশৃঙ্খলা বিরাজ করছে।

বিজ্ঞাপন

তথ্য ও সম্প্রচার অধিদপ্তর যদি সাংবাদিক সংগঠনগুলো নিয়ন্ত্রণ করে তবে চরম বিশৃঙ্খলা, অনৈক্য, একাধিক সংগঠনের জন্ম থেকে সাংবাদিক সমাজ রক্ষা পাবে। প্রশ্ন তবে সাংবাদিক সংগঠনগুলোকে কেন তথ্য ও সম্প্রচার অধিদপ্তর নিয়ন্ত্রণ করবেনা?

বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের পক্ষ থেকে দেশের সাংবাদিক সংগঠনসমুহকে নিবন্ধন, নিয়ন্ত্রনের আওতায় আনার দাবি করা হয়। সারাদেশের সাংবাদিক সংগঠনগুলোকে নিবন্ধনের আওতায় আনা হলে সরকারের রাজস্ব বৃদ্ধি পাবে।

সাংবাদিক সংগঠনের মাঝে সমৃদ্ধি, ঐক্য, শক্তি বৃদ্ধি পাবে। আশা করা হচ্ছে সরকার বাহাদুর দেশের সাংবাদিক সমাজের মাঝে শৃঙ্খলা ফেরাতে দ্রুত নিবন্ধন প্রক্রিয়ার আওতায় এনে পেশাটিকে মুক্তি দিবেন।

এসব কাজের সর্বাগ্রে যা প্রয়োজন তা হলো দেশ থেকে ভুয়া, হলুদ ও অপ-সাংবাদিকতা মুক্ত করা। এজন্য প্রয়োজন পেশাদার সাংবাদিকদের তালিকা প্রণয়ন।

এটি আজ সারাদেশের পেশাদার সাংবাদিকদের প্রাণের দাবিতে পরিনত হয়েছে। আসুন; আমরা এসব দাবিতে ঐক্যবদ্ধ হই। সাংবাদিকদের ১৪ দফা বাস্তবায়নে বিএমএসএফের কমিটি গঠনের মধ্য দিয়ে জনমত তৈরী করে তৃণমূল আন্দোলন গড়ে তুলুন। গণমাধ্যম সপ্তাহকে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির দাবিতে স্বোচ্চার হোন। সাংবাদিক নির্যাতন -হয়রাণীকে না বলুন।

আহমেদ আবু জাফর, সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম, কেন্দ্রীয় কমিটি, ৩ মে ২০২১খ্রী:।

আরও পড়ুনঃ ময়মনসিংহের এসপি’র কাছে সাংবাদিকের খোলা চিঠি

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

x