13.7 C
New York
শনিবার, মে ৮, ২০২১

আইরমারী উচ্চ বিদ্যালয়ে নিয়োগ প্রাপ্ত শিক্ষককে বাদ দিয়ে নতুন শিক্ষক নেওয়ার পরিকল্পনা অব্যাহত

বিজ্ঞাপন

জামালপুর জেলা প্রতিনিধিঃ
জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার মেরুরচর ইউনিয়নে আইরমারী উচ্চ বিদ্যালয়ে সরকারি বিধি মোতাবেক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি নিয়োগ পরীক্ষা, নিয়োগপত্র ও যোগদান করার পরেও সহকারী প্রধান শিক্ষক পদে চাকুরিরত শিক্ষক জাকির হোসেনকে বাদ দিয়ে প্রধান শিক্ষক ইউসুফ আলী তার ছোট ভাই বিল্লাল হোসেনকে উক্ত পদে নতুন করে নিয়োগ দেওয়ার জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করে চলেছে।

বিজ্ঞাপন

প্রার্থীসহ এলাকাবাসী কর্তৃক লিখিত অভিযোগে জানা যায় যে, প্রধান শিক্ষক ইউসুফ আলীর স্বাক্ষরিত গত ২১ শে অক্টোবর ২০১৪ইং তারিখে দৈনিক মানব জমিন ও দৈনিক জামালপুর কন্ঠ পত্রিকায় প্রকাশিত সহকারী প্রধান শিক্ষক পদসহ আরোও কয়েকটি পদে শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দিলে সেই ধারাবাহিকতায় জাকির হোসেন সহকারী প্রধান শিক্ষক পদে আবেদন করে এবং আবেদনের পেক্ষিতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি মোতাবেক গত ১২ই ডিসেম্বর ২০১৪ইং তারিখে নিয়োগ বাছাই পরীক্ষার ঘোষণা করা হলে জাকির হোসেনকে প্রথম হিসাবে নির্বাচিত করেন।

উক্ত পদে নিয়োগ বাছাই পরীক্ষার ফলাফল ফরমে স্বাক্ষর করেন বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি শহিদুর রহমান মাস্টার, অভিভাবক সদস্য একরামুল হক, ডিজি মহোদয়ের প্রতিনিধি সুশীল চন্দ্র বর্মন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ ছানোয়ার হোসেন ও প্রধান শিক্ষক ইউসুফ আলী।

বিজ্ঞাপন

এছাড়াও প্রধান শিক্ষক ১২ই ডিসেম্বর ১৪ইং তারিখে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত মোতাবেক নি¤œ বর্ণিত শর্ত সাপেক্ষে অস্থায়ী ভিত্তিতে নিয়োগের জন্য চূড়ান্তভাবে নির্বাচন করা হয় জাকির হোসেনকে।

গত ২৭শে ডিসেম্বর ১৪ইং তারিখে নিয়োগপত্র প্রাপ্তি সাপেক্ষে জাকির হোসেন ১লা জানুয়ারি ২০১৫ইং তারিখে অত্র বিদ্যালয়ে সহকারী প্রধান শিক্ষক হিসাবে যোগদান করে যোগদান পত্রে প্রধান শিক্ষক স্বাক্ষর করে তাকে নিয়ম মাফিক বৈধ ও নিয়মিত শিক্ষক হিসেবে গ্রহণ করেন।

বিজ্ঞাপন

উল্লেখিত তথ্যানুযায়ী সহকারী প্রধান শিক্ষকের পদ থেকে বাদ দিয়ে অন্য কোন পথ অবলম্বন করাসহ আইনগত ভাবে কোন সুযোগ প্রধান শিক্ষকের আছে কিনা তা জানতে এলাকাবাসী ইচ্ছে পোষণ করেছে।

এলাকাবাসী জানায়, আপোষের মাধ্যমে সমাধান না হলে আইনের আশ্রয় নিতে বাধ্য থাকবে প্রার্থী স্বয়ং। জুরুরী তদন্ত সাপেক্ষে বিষয়টি কর্তৃপক্ষ সমাধান না করতে পারলে প্রার্থী বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে সঠিক বিচার ও সমাধান নিতে চেষ্ঠা করবে বলে জানিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

x