13.7 C
New York
শনিবার, মে ৮, ২০২১

ইসলামপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের হাত-পা ভেঙে লাশ গুম করার হুমকি

মোঃ হোসেন আলী শাহ্ ফকির, ইসলামপুর (জামালপুর) প্রতিনিধি

বিজ্ঞাপন

জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার কুলকান্দী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানের হাত-পা ভেঙে প্রাণনাশে মেরে ফেলে লাশ গুম করার হুমকির অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম ওরুফে হাসমতের বিরুদ্ধে।

বিজ্ঞাপন

গত বৃহস্পতিবার (১লা এপ্রিল) সকালে এ ঘটনা ঘটে। এতে নিরাপত্তা হীনতায় ভোগছেন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ওবায়দুল হক বাবু। এ ব্যাপারে আইনগত প্রতিকার চেয়ে ইউপি চেয়ারম্যান ওবায়দুল হক বাবু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত আবেদন করেছেন।

ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম হাসমত কর্তৃক প্রাণনাশের হুমকির বিচার ও পরিষদের নিরাপত্তা বিধানে ব্যবস্থা গ্রহণ’ শিরোনামে আবেদনে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে এগারোটায় কুলকান্দি ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম হাসমত কুলকান্দী ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ওবায়দুল হক বাবুকে
প্রাণনাশের উদ্দেশ্যে প্রায় ৫০-৬০ জন সন্ত্রাসী সাথে নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে অতর্কিত ভাবে প্রবেশ করে।

বিজ্ঞাপন

এ সময় পরিষদে না থেকে প্রাণে বেঁচে যান চেয়ারম্যান ওবায়দুল হক বাবু। বাবুকে সেখানে না পেয়ে খোরশেদ আলম হাসমত অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে হুমকি দেয় দিয়ে বলে চেয়ারম্যান ওবায়দুল হক বাবু যদি আগামী ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আ’লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে, তাহলে তার হাত-পা ভেঙে প্রাণে মেরে ফেলে লাশ গুম করে ফেলবে ।

এছাড়া হাসমত এবং তার সন্ত্রাসী বাহিনী সংরক্ষিত মহিলা সদস্য লাবলী আক্তারকেও অকথ্য অশ্লীল ভাষায় আক্রমণ করে।

বিজ্ঞাপন

অপরদিকে সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার সুরাইয়া বেগমের ছেলে ওবায়দুল্লাহকে লাঞ্চিত করাসহ তার মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট ডিলিট করে দেয়।
এমতাবস্থায় ইউপির কার্যালয়ের ঘর,বিভিন্ন আসবাবপত্র, মালামাল ও মূল্যবান কাগজপত্র সংরক্ষণ করাসহ ইউপি চেয়ারম্যান এবং পরিষদের সকল সদস্য নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছে।

ঘটনার পত্যাক্ষদর্শী স্থানীয় বাসিন্দা শামসুল হক, আজিম বিল্লা, মোরশেদ, আজগর আলী, হুদা মিয়া, জামাল শেখসহ অনেকেই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
ইউপির সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার লাভলী আক্তার জানান, ‘আমি ইউপি কার্যালয়ে যাওয়ার সময় আ’লীগ নেতা হাসমত শতাধিক লোকজন নিয়ে আমাকে অশালীন ভাষায় আক্রমণ করে হুমকি দেয় যদি তোদের চেয়ারম্যান যদি আগামী ইউপি নির্বাচনে আ’লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র ক্রয় করে, তাহলে তোদের খবর আছে।’

সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার জয়নব বেগম জানান, ‘আগামী নির্বাচনে যাতে বাবু চেয়ারম্যান নৌকা প্রতীক না দাবি করে, সেজন্য আ’লীগ নেতা হাসমত বেপরোয়া হয়ে পড়েছে। হাসমত আমার ছেলের মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে ঘটনার ভিডিও করা হয়েছে সন্দেহ করে মেমোরির সব তথ্য ডিলিট করে দিয়েছে।’

ইউপি সচিব আক্তারুজ্জামান জানান, ‘আমি ইউপি কার্যালয়ে কাজ করা সময় আ’লীগ নেতা হাসমত অতর্কিতভাবে প্রবেশ করে ইউপি চেয়ারম্যানকে উদ্দেশ্য গালিগালাজ করেছে।’
ইউপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ওবায়দুল হক বাবু জানান, আগামী ইউপি নির্বাচনে আমি আ’লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র যাতে না সংগ্রহ করি, সেজন্য আমাকে কুনঠাসা করতেই ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম হাসমত নানাবিধ ফন্দি করছে।

এ ব্যাপারে খোরশেদ আলম হাসমত জানান- ঘটনাটি আমি একটি চক্রের মধ্যে পড়ে হঠাৎ করে ঘটিয়ে ফেলেছি। তার জন্য আমি অনুতপ্ত।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস.এম মাজহারুল ইসলাম জানান, ‘আমি ঘটনার বিষয়ে মৌখিক ভাবে জেনেছি। আইনগতভাবে থানায় জিডি করতে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ওবায়দুল হক বাবুকে পরামর্শ দিয়েছি।’

আরও পড়ুনঃ ময়মনসিংহে ডিবির হাতে ৯ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

x