13.7 C
New York
শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২১

কেন্দুয়ায় মুক্তিযোদ্ধার ওপর হামলার ঘটনায় মাদ্রাসা শিক্ষক আটক

বিজ্ঞাপন

সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

বিজ্ঞাপন

টাকা পাওনাকে কেন্দ্র করে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক অর্থ কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহিমের উপর অতির্কত হামলার ঘটনা ঘটে। সোমবার সন্ধ্যার আগে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা পুরাতন কমান্ড কার্যালয়ের সামনে অতির্কত এ হামলা চালান পৌর শহরের চকপাড়া কওমি মাদ্রাসার শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম। হামলায় আহত মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহিমকে কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সিরাজুল ইসলাম বর্তমানে কেন্দুয়া পৌর শহরের শান্তিবাগ মহল্লায় বসবাস করলেও তার পৈত্রিক বাড়ি মদন উপজেলার চন্দ্রতলা গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের আসাব উদ্দিনের ছেলে।



বিজ্ঞাপন

জানা যায় স্থানীয় গুলশান ফাউন্ডেশন থেকে ৫ বছর আগে ৯০ হাজার টাকার ঋণ গ্রহণ করেন কমলপুর মহল্লার মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহিমের স্ত্রী পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর রাহেলা বেগম। ইতিমধ্যে ঋণের ৬৫ হাজার টাকা পরিশোধ করে কিছুদিন আগে মারা যান তিনি। স্ত্রীর মৃত্যুর পর ফাউন্ডেশনের ২৫ হাজার টাকা পরিশোধের জন্য কিছুদিনের সময় চান আব্দুর রহিম। উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার মোঃ বজলুর রহমান জানান, প্রতিদিনের মত কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা নিয়ে কমান্ড কার্যালয়ের বারান্দায় বসে গল্প করছিলেন। কিন্তু সন্ধ্যার কিছু আগে মাদ্রাসার শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম ওই পথ ধরে যাচ্ছিলেন। এসময় ঋণের বিষয়ে কথা বলতে আব্দুর রহিম তাকে কমান্ড কার্যালয়ের বারান্দায় আসার জন্য ডাক দেন। কিন্তু সিরাজুল ইসলাম মুক্তিযোদ্ধা রহিমকে বের হতে বলেন। ঘর থেকে বের হলে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সিরাজুল ইসলাম রহিমের উপর অতর্কিতে হামলা চালায়।



বিজ্ঞাপন

পরে স্থানীয় লোকজন তাকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। কেন্দুয়া থানার ওসি মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামান জানান, মুক্তিযোদ্ধার ওপর হামলার ঘটনায় কওমি মাদ্রাসার শিক্ষক সিরাজুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলেই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এদিকে শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম হামলার ঘটনা অস্বীকার করে বলেন, কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতির সময় আমার হাতের ছাতা ভেঙ্গে গেলে তিনি আহত হয়েছেন।

আরো পড়ুন>> কেন্দুয়ায় রূপালী লাইফের মৃত্যু দাবী চেক প্রদান

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

বিজ্ঞাপন
x