13.7 C
New York
শনিবার, মে ৮, ২০২১

ক্রিকেট আম্পায়ার থেকে সফল উদ্যোক্তা রবিউল হক চৌধুরী

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রামের ছেলে আই.সি.সি‘র প্রাক্তন প্যানেলভুক্ত আম্পায়ার রবিউল হক চৌধুরী এখন একজন সফল উদ্যোক্তা। নতুন খামারীদের জন্যে এক বিশ্বস্ত নাম। নিজ এলাকা উত্তর কাট্টলীতে প্রতিষ্টিত করেছেন আরবিস এগ্রো । তার এই শেড এ ৩৫-৪০ টির কাছাকাছি গরু রাখার ব্যবস্থা রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিগত দুই বছরে তার এগ্রো থেকে ৪ শতাধিক গরু সুলভ মূল্যে তিনি বিক্রয় করেছেন।

জীবনের সব বাধা গুলো এড়িয়ে, এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন নিজের জীবন ও তার প্রতিষ্ঠিত খামার আরবি‘স এগ্রোকে। ২০শে এপ্রিল বুধবার তার সাথে সরাসরি কথা বলে জানা যায় হার না মানা এক সফলতার ইতিহাস।

বিজ্ঞাপন

গত ঈদুল আযহায় তার খামার থেকে ৭২ টি গরু বিক্রয় করেছেন। তার মধ্যে ১৭ টি গরু বিক্রয় হয়েছে অনলাইনে। এবছর ও ৩০ টির অধিক অনলাইনে গরু বিক্রয়ের আশা করছেন। তিনি বলেন, আরবি‘স এগ্রো তথ্যপ্রযুক্তির বাইরে নয়। তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক পেইজের ১০ হাজারের কাছাকাছি ফলোয়ার্স রয়েছেন।

সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে প্রতি শুক্রবার তার খামারের গরুর বীফ প্যাকেজ করা হয়। অনলাইনে মাংস ও গরু বিক্রয় সফল ভাবেই বিশ্বস্ততার সাথে করে যাচ্ছেন।

বিজ্ঞাপন

প্রতিষ্ঠিত খামার আরবিস এগ্রো অন্যান্য খামারীদের জন্যও এক বিশ্বস্ততার প্রতীক। লাইভ ওয়েট এ গরু ওজন দিয়ে মাংসের হিসেব করে অন্যান্য খামারীরা এখান থেকে গরু ক্রয় করে নিয়ে যেতে পারছেন। চাহিদার কথা বিবেচনায় রেখে প্রতি সপ্তাহে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বিভিন্ন সাইজের নতুন গরু সংগ্রহে আসছে আরবিস এগ্রোতে পরবর্তীতে তা চলে যাচ্ছে চট্টগ্রাম এর ছোট বড় নানা খামারে।

গত কোরবানির ঈদের পর থেকে আজ অবধি চট্টগ্রাম এর মোট ১৮ টির ও বেশি খামারে ১৫৫ টি ,ভালো জাতের মানসম্পন্ন গরু খামারীদের কাছে সুলভ মূল্যে বিক্রয় করতে সক্ষম হয়েছে রবিউল হক চৌধুরীর এগ্রো যার বেশির ভাগই এই বছর কোরবানির সময় বিক্রয় হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

আরবিস এগ্রো‘র বিশেষ বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এখানে প্রাকৃতিক খাবার দিয়ে গরু লালন-পালন করা হয়। মানব দেহের ক্ষতিকর এমন কোনো খাবার গরুকে খাওয়ানো হয় না।

আরবিস এগ্রোতে বিশেষ বিশেষ নামে গরু ও রয়েছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে পাল্লু, টমটম,পবল ও পবন। পাল্লু আকারে বেশ বড়সড়। হাটা চলায় সাহেবী ভাব রয়েছে।

ইতোমধ্যে তার ওজন ৬‘শ কেজি ছাড়িয়ে যাচ্ছে। টমটম, পাল্লুর চেয়ে কয়েক ধাপ এগিয়ে রয়েছে। টমটমের ওজন কোরবানি আসতে আসতে ৭০০ কেজির অধিক হবে বলে তিনি আশা করছেন।

আর পবল ও পবন সাদা উলবারী ইন্ডিয়ান জাতের বলদ।

এবারের ঈদুল আযহায় দেশবাসীকে শতাধিক গরু উপহার দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে প্যানেলভুক্ত আম্পায়ার রবিউল হক চৌধুরী।

তিনি সবার দোয়া প্রার্থী।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

x