গৌরিপুরে শুভ্র হত্যা’র ১ম স্মরণ সভায় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচার দাবি নেতৃবৃন্দের 

স্টাফ রিপোর্টার:

0
1

ময়মনসিংহ জেলা গৌরিপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক শহীদ মাসুদুর রহমান শুভ্র’র প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে গৌরিপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ এর উদ্যোগে আয়োজিত স্মরণ সভা ১৭ অক্টোবর বিকাল ৫ টায় গৌরিপুর উপজেলার ধানমহালে অনুষ্ঠিত হয়েছে। গৌরিপুরে শুভ্র হত্যা’র ১ম স্মরণ সভায় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারের দাবিতে জনতার শ্লোগান শোনা যায়। 

স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল তিনি বলেন, শুভ্র হত্যাকান্ডে ন্যায় বিচার নিশ্চিত করা হবে। আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলের ত্যাগী ও নিবেদিত নেতাকর্মীদের মধ্য থেকে প্রার্থী প্রস্তাব করা হবে । গৌরিপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডাঃ হেলাল উদ্দিন এর সভাপতিত্বে ও গৌরিপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বিধু ভূষন দাস এর পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল এমপি। তিনি বলেন, শহীদ মাসুদুর রহমান শুভ্র’র খুনীদের দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে বিচার নিস্পত্তি করা হবে। স্মরন সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রেমন্ড আরেং, ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট আলহাজ্ব মোঃ জহিরুল হক খোকা, সহ সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ এমপি, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সাধারণ সম্পাদক এ কে এম আফজালুর রহমান বাবু, ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক ড. সামিউল আলম লিটন, শরীফ হাসান অনু, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক একেএম আবদুর রফিক, জেলা আওয়ামী লীগ সদস্য নাজনীন আলম, নীলুফার আনজুম পপি, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সদস্য মোর্শেদুজ্জামান সেলিম, ময়মনসিংহ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট এবিএম নুরুজ্জামান খোকন, গৌরিপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ মোফাজ্জল হোসেন, ময়মনসিংহ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সাধারণ সম্পাদক উত্তম চক্রবর্তী রকেট প্রমুখ।
বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক এ কে এম আফজালুর রহমান বাবু বলেন, শহীদ মাসুদুর রহমান শুভ্র একজন জনপ্রিয় নেতা ছিলেন। খুনীরা তার জনপ্রিয়তায় ইর্ষান্বিত হয়ে নির্মম ভাবে তাকে হত্যা করে। খুনিদের দ্রুত বিচার নিশ্চিত করার জন্য সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে । তিনি আরও বলেন, সাম্প্রদায়িক অপশক্তি চক্রের সদস্যরা বিভিন্ন ভাবে সংগঠনে অনুপ্রবেশ করেছে! সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তারা তাদের সাম্প্রদায়িক মনোভাব প্রকাশ করায় বিষয়টি দৃশ্যমান হচ্ছে। সাম্প্রদায়িক অপশক্তি চক্রের সদস্যদের চিহ্নিত করে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হবে। অপশক্তি চক্রের কেউ যেন সংগঠনে অনুপ্রবেশ করতে না পারে সে বিষয়ে কঠিন পদক্ষেপ নেওয়া হবে । যেকোন মূল্যে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির অপতৎপরতার কঠিন জবাব দিতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান। স্মরণ সভায় ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগ, গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের কয়েক হাজার নেতাকর্মী উপস্হিতি ছিলেন।