চিটাগাং চেম্বারের দাবীর প্রেক্ষিতে চট্টগ্রাম থেকে আইপি ইস্যুর অনুমোদন চিটাগাং চেম্বারের দাবীর প্রেক্ষিতে চট্টগ্রাম থেকে আইপি ইস্যুর অনুমোদন – durjoy bangla | দুর্জয় বাংলা
  1. durjoybangla24@gmail.com : durjoy bangla : durjoy bangla
  2. afzalhossain.bokshi13@gmail.com : Afjal Sharif : Afjal Sharif
  3. aponsordar122@gmail.com : Apon Sordar : Apon Sordar
  4. awal.thakurgaon2020@gmail.com : abdul awal : abdul awal
  5. sheblikhan56@gmail.com : Shebli Shadik Khan : Shebli Shadik Khan
  6. jahangirfa@yahoo.om : Jahangir Alam : Jahangir Alam
  7. mitudailybijoy2017@gmail.com : শারমীন সুলতানা মিতু : শারমীন সুলতানা মিতু
  8. nasimsarder84@gmail.com : Nasim Ahmed Riyad : Nasim Ahmed Riyad
  9. netfa1999@gmail.com : faruk ahemed : faruk ahemed
  10. rtipu71@gmail.com : razib :
  11. absrone702@gmail.com : abs rone : abs rone
  12. sumonpatwary2050@gmail.com : saiful : Saiful Islan
  13. animashd20@gmail.com : Animas Das : Animas Das
  14. Shorifsalehinbd24@gmail.com : Shorif salehin : Shorif salehin
  15. sbskendua@gmail.com : Samorendra Bishow Sorma : Samorendra Bishow Sorma
  16. swapan.das656@gmail.com : Swapan Des : Swapan Des
শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ০১:১৫ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
জৈন্তাপুরে নতুন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ৬, নমুনা সংগ্রহ ৪৪ জনের কেন্দুয়ার প্রবীণ সাংবাদিকসহ তার পরিবারে ৫ জন করোনা আক্রান্ত গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানায় মশা নিধন অভিযান রাজারহাটে সানু হত্যার ২৮ দিনেও পুলিশ প্রশাসন হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি পটুয়াখালীর বাউফলে গত এক মাসে নতুন করে কেউ করোনা আক্রান্ত হয়নি শ্রীনগরে অমিত বাহিনীর হামলার ৮ জন আহতের ঘটনায় থানায় মামলা নকলা উপজেলায় স্বেচ্ছাশ্রমে কৃষকের আউশ ধান রোপন নেত্রকোনার খালিয়াজুরীতে ধনু নদীর ভাঙনে প্রায় শতাধিক ঘরবাড়ি নদী গর্ভে বিলীন! ঠাকুরগাঁওয়ে তিন চোখ-দুই মুখ-দুই জিহবা নি‌য়ে অদ্ভুত গরুর বাছুর জন্ম মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত বাউল সালাম সরকার




চিটাগাং চেম্বারের দাবীর প্রেক্ষিতে চট্টগ্রাম থেকে আইপি ইস্যুর অনুমোদন

  • প্রকাশের সময় | সোমবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
  • ২২৮ বার পঠিত
চিটাগাং চেম্বারের দাবীর প্রেক্ষিতে চট্টগ্রাম থেকে আইপি ইস্যুর অনুমোদন

জাহাঙ্গীর আলম,নির্বাহী সম্পাদকঃ
চট্টগ্রামের সর্বস্তরের ব্যবসায়ী সমাজের পক্ষে দি চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র দাবীর প্রেক্ষিতে পুনরায় চট্টগ্রামস্থ উদ্ভিদ সংগনিরোধ কেন্দ্র থেকে চট্টগ্রাম জেলাধীন সকল আমদানিকারকদের অনুকূলে আইপি সনদ ইস্যুর অনুমোদন দেয়া হয়েছে। ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং উপ-পরিচালক’র কার্যালয়,উদ্ভিদ সংগনিরোধ কেন্দ্র, সমুদ্র বন্দর, চট্টগ্রাম হতে চেম্বার সভাপতি বরাবর প্রেরিত এক পত্রের মাধ্যমে এ বিষয়ে অবগত করা হয়। পত্রে বলা হয়-“উদ্ভিদ সংগনিরোধ কেন্দ্র, সমুদ্র বন্দর, চট্টগ্রাম কার্যালয় থেকে চট্টগ্রাম জেলাধীন আমদানিকারকদের আবেদন বিবেচনা করে সমুদ্র বন্দর চট্টগ্রাম হতে আমদানি অনুমতিপত্র(আইপি) ইস্যুর নিমিত্ত উদ্ভিদ সংগনিরোধ আইন, ২০১১ এর দ্বিতীয় অধ্যায়ের ধারা-৫ মোতাবেক পরিচালক, উদ্ভিদ সংগনিরোধ উইং, খামারবাড়ী, ঢাকা কর্তৃক উপ-পরিচালক, উদ্ভিদ সংগনিরোধ কেন্দ্র, সমুদ্র বন্দর, চট্টগ্রামকে আমদানি অনুমতিপত্র(আইপি) ইস্যুর ক্ষমতা অর্পন করা হয়েছে”। এ প্রসংগে চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম চট্টগ্রাম হতে পুনরায় আইপি ইস্যুর অনুমোদন প্রদান করায় বর্তমান সরকার,সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও দপ্তরের প্রতি অকৃত্রিম ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। তিনি ভবিষ্যতেও দেশের ব্যবসা-বাণিজ্যের উন্নয়নের চলমান ধারাকে ত্বরান্বিত করতে ব্যবসাবান্ধব সরকারের এ জাতীয় ইতিবাচক ভূমিকা অব্যাহত থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। একই সাথে চেম্বার সভাপতি দেশের সকল অঞ্চলের ব্যবসায়ীদের সমান সুযোগ তথা ব্যবসা সহজীকরণের লক্ষ্যে অনতিবিলম্বে আইপি ইস্যু কার্যক্রমের পূর্ণাঙ্গ অটোমেশন বাস্তবায়নের আহবান জানান। উল্লেখ্য, বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণের লক্ষ্য পূরণের অংশ হিসেবে আইপি ইস্যুকরণ অটোমেশনের আওতায় আনা হয়েছিল। কিন্তু ব্যবসাকে সহজীকরণের উদ্দেশ্যে আইপি ইস্যুর অটোমেশনের আওতায় আনা হলেও পদ্ধতিগতভাবে তাতে পূর্বের সনাতনী ব্যবস্থার ছাপ রয়ে গিয়েছিল। অর্থাৎ অনলাইনে ফরম পূরণ করলেও ব্যাংক চালানের মূলকপি ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রাদি ঢাকাস্থ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরে ফিজিক্যালি দাখিল করা হতো। অন্যদিকে আইপি ফরম পূরণে কোন ভুল-ত্রুটি পরিলক্ষিত হলে তা ফরম জমা দেয়ার দুই থেকে চার দিন পর জানা যায় এবং সংশোধনের জন্য পুনরায় ঢাকাস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যেতে হয়। যা ঢাকা জেলার বাইরের একজন আমদানিকারক/ব্যবসায়ীর জন্য ব্যয় ও সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। কিন্তু একজন আমদানিকারক এলসি খোলার জন্য রপ্তানিকারক হতে যে সময় পান তা খুবই স্বল্প (সাধারণত ৭ দিন) যা আইপি সনদ পেতে পেতে অতিক্রম হয়ে যায় এবং এর ফলে রপ্তানিকারক কর্তৃক পণ্যের মূল্য
বৃদ্ধি করার প্রবণতা লক্ষ্য করা যায়। অথচ চট্টগ্রাম বা খুলনার আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে আমদানিকারকরা এ কাজ আরো কম সময় ও ব্যয়ে করে আসছিলেন। এমন পরিস্থিতিতে চট্টগ্রামের সর্বস্তরের ব্যবসায়ীর পক্ষ হতে চিটাগাং চেম্বার বিভিন্ন সভা সেমিনারে দাবী জানানোর পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও দপ্তরে পত্র মারফত প্রকৃত অটোমেশন না হওয়া পর্যন্ত ব্যবসায়ীদের সময় ও ব্যয় সাশ্রয়ের নিমিত্তে চট্টগ্রাম হতে আইপি ইস্যুর আবেদন জানিয়ে এসেছে।নং-এম/জিইএন/৩৫/৮৯৫ ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং

আপনার মতামত লিখুনঃ
নিউজটি সেয়ার করার জন্য অনুরোধ রইল!
এই জাতীয় আরো সংবাদ







©২০১৩-২০২০ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | দুর্জয় বাংলা

Theme Customized By durjoybangla
বিজ্ঞপ্তি