13.7 C
New York
বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২১, ২০২১

জৈন্তাপুরে মহিলা মাদ্রাসায় আহাদ বাহিনীর হামলা দপ্তরি ও পাহারাদার আহত, থানায় অভিযোগ দাখিল

জৈন্তাপুর প্রতিনিধি

বিজ্ঞাপন

জৈন্তিয়া জামেয়া ইসলামীয় মহিলা মাদ্রাসা দখলের চেষ্টা চালায় এড. আব্দুল আহাদ গংরা, মাদ্রাসার অফিস গেইট ও অফিস কক্ষের তালা ভেঙ্গে ল্যাপটপ কম্পিউটার ও জরুরী কাগজপত্র আত্মসাৎ এবং দপ্তরি ও নাইটগার্ডকে মারদর।

বিজ্ঞাপন

২৫ সেপ্টেম্বর শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় এড. আব্দুল আহাদ নির্দেশে সিরাজুল ইসলাম উরফে জুতা সিরাজ, সোবহান মোল্লা, আব্দুল খালিক মোল্লা, আব্দুল জব্বার, আব্দুল খালিক সহ ১৫/২০ জনের বাহিনী জৈন্তিয়া জামেয়া ইসলামিয়া মহিলা মাদ্রাসার সম্মুখে অবস্থান নেয় এবং পাহারাদারকে গেইট খুলতে বলে।

পাহারাদার আব্দুল খালিক ও দপ্তরি শিরিনা বেগম গেইট খুলে না দিলে তাদের উপর হামলা চালায় এবং গেইট ও অফিস কক্ষের তালা ভেঙ্গে মাদ্রাসায় রক্ষিত একটি ল্যাপটপ ও জরুরী কাগজপত্র নেয়।

বিজ্ঞাপন

পাহারাদার ও দপ্তরি চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে আহতবস্থায় দুজনকে উদ্ধার করে জৈন্তাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করে। অপরদিকে এলাকার মহিলারা মাদ্রাসা দখলের বিষয় জানতে পেরে দ্রুত এগিয়ে এসে ঝাড়– দিয়ে ধাওয়া করেলে দখলকারী আব্দুল আহাদ ও জুতা সিরাজ গংরা পালিয়ে যায়।

এলাকাবাসীর পক্ষে সমাজসেবী মাসুক আহমদ বলেন, মাদ্রাসাটি একজন ব্যক্তি এলাকার জনগনের সন্তানদের লেখাপড়ার জন্য নিজ খরচে জায়গা জমি ক্রয় করে মাদ্রাসা তৈরী করেদেন।

বিজ্ঞাপন

এ্যাড. আব্দুল আহাদ পরিচালনার দায়িত্ব নিয়ে একপর্যায় সে মাদ্রাসাটি তার ব্যক্তিগত বলে দাবী করে এবং মাদ্রাসা তার ব্যবসা প্রতিষ্টান হিসেবে গড়ে তুলে।

পরবর্তীতে উপজেলা নির্বাহী সহ বিভিন্ন দপ্তর সরেজমিন তদন্তে নামলে তার কোন কিছু দেখাতে পারেনি। আব্দুল আহাদ মাদ্রাসার নামে টাকা পয়সা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করে। এলাকাবাসীকে দায়িত্বদেন উপজেলা প্রশাসন।

আহাদ সুবিধা করতে না পেরে এখান ভাড়াটিয়া গুন্ডা বাহিনী আহাদ সমর্থিত কতিত শালিশ দিয়ে মাদ্রাসা দখলের অপচেষ্টার লক্ষে আজ সকালে অপচেষ্টা চালায়।

সে তার বাহিনী পাহারাদার ও দপ্তরিকে মারপিট করে আহত করে এবং মাদ্রাসার ল্যাপটপ কম্পিউটার সহ অতি গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র ছিনতাই করে পারিলে যায়।

এদিকে খরব পেয়ে দ্রুত জৈন্তাপুর মডেল থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে যায় এবং এলাকাবাসীকে শান্ত করে পরিস্থিতি নিয়েন্ত্রনে আনে। পুলিশের আসার খরব পেয়ে আহাদের প্রেরিত কতিত শালিরা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। দপ্তরি শিরিনা বাদী হয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানায় মামলা দায়েরের করে।

জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম দস্তগির আহমদ বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ পাটিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনা হয়েছে।

একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আহতরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আরও পড়ুনঃ বঙ্গবন্ধুর স্ব-পরিবারে হত্যা কারীদের বিচার বাংলার মাটিতে হয়েছে ইসলামপুরে ———-বেগম মতিয়া চৌধুরী

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

বিজ্ঞাপন
x