13.7 C
New York
Saturday, July 31, 2021

ঝিনাইগাতীতে অ্যাসাইনমেন্ট ফি’র নামে বাধ্যতামূলক টাকা আদায়ের অভিযোগ

মোহাম্মদ দুদু মল্লিক, শেরপুর জেলা প্রতিনিধি:

বিজ্ঞাপন

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার গুরুচরণ দুধনই আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অ্যাসাইনমেন্ট ফি’র নামে বাধ্যতামূলক টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ একে টিউশন ফি আদায়ের কৌশল বলে জানিয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রমতে, ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত প্রায় ৪ শতাধিক শিক্ষার্থী আছে। করোনা পরিস্থিতিতে চলতি শিক্ষাবর্ষের পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচির ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়নের জন্য ৭ নভেম্বর থেকে অ্যাসাইনমেন্ট শুরু হয়। এর ফলে প্রতি সপ্তাহের শনিবার তিনটি বিষয়ের ওপর শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

এতে শিক্ষার্থীদের এক পাতার অ্যাসাইনমেন্ট সংক্রান্ত কাগজ, দুই পাতার সাদা কাগজ ও স্কুলের নামসহ শিক্ষার্থীদের পরিচিতি লিখতে এক পাতার ছাপা কাগজ সরবরাহ করা হচ্ছে, যা নিতে হলে বাধ্যতামূলকভাবে ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের ৩৫০ টাকা করে দিতে হচ্ছে। আজ শনিবার সকালে সরেজমিনে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার সত্যতা পাওয়া গেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নবম শ্রেণির দুই শিক্ষার্থী জানায়, গত শনিবার থেকে তাদের অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হচ্ছে। এ জন্য একটি কাগজে তিনটি বিষয়ের অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হচ্ছে। প্রতিটি বিষয়ের জন্য দুই পাতার সাদা কাগজ দেওয়া হয়েছে।



বিজ্ঞাপন

যাতে অ্যাসাইনমেন্ট লিখে মূল্যায়নের জন্য জমা দিতে হবে। তাদের কাছ থেকে প্রতিটি বিষয়ের জন্য ৬০ টাকা করে নিচ্ছে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ টাকা না দিতে পারায় অনেক শিক্ষার্থীদের সাথে খারাপ আচরণ করা হয়েছে এবং বিভিন্ন রকমের হুমকিও দিয়েছেন। এর ফলে সর্বমোট (দুই)শনিবার মিলিয়ে আজ ছয়টি বিষয়ের জন্য ৩৬০ টাকা করে দিতে হয়েছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির প্রধান শিক্ষক আব্দুল মালেক বলেন, ‘এটা অ্যাসাইনমেন্টের ফি নয়। মূলত টিউশন ফি নেওয়া হচ্ছে। তবে চলমান পরিস্থিতি বিবেচনায় নির্ধারিত টিউশন ফি ৭০ ভাগ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে আদায় করা হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে শিক্ষা অফিসের সঙ্গে কথা হয়েছে।



বিজ্ঞাপন

আমরা অ্যাসাইনমেন্ট শেষ হলে টাকা আদায় করতে পারব না।এ জন্য কৌশল অবলম্বন করে বাধ্যকরা হচ্ছে শিক্ষার্থীদের।’ শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা জানান, করোনা পরিস্থিতিতে স্কুল বন্ধ কিভাবে প্রধান শিক্ষক টিউশন ফি -র কথা বলে টাকা নিচ্ছে বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার সহ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করেছেন অভিভাবকসহ এলাকাবাসী।

আরো পড়ুন: কেন্দ্রীয় বিএমএসএফের চতুর্থ কাউন্সিলের তারিখ ঘোষণা

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

x