ঝিনাইগাতীতে পাহাড়ি ঢলে ৩টি ইউনিয়ন প্লাবিত

0
132
ঝিনাইগাতীতে পাহাড়ি ঢলে ৩টি ইউনিয়ন প্লাবিত

মোহাম্মদ দুদু মল্লিক শেরপুর জেলা প্রতিনিধিঃ শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলায় অবিরাম বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। গতকাল রাত থেকে ১৭ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত টানা বর্ষণের ফলে উজানে পাহাড়ি ঢলের পানিতে মহারশী নদীর বাঁধের দু’কোল উপচে বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় ঢলের পানি প্রবেশ করে বৃহস্পতিবার বিকেলে ঝিনাইগাতী সদর, ধানশাইল ও কাংশা ইউনিয়নের ১৫টি গ্রামের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে ওইসব এলাকার শত শত মানুষ। পানিবন্দী এলাকায় আমন ধানের কিছু ক্ষেতে পলি জমে সামান্য ক্ষতি হয়েছে।



ভেসে গেছে পুকুরের মাছ। এছাড়াও মহারশী নদীর বাঁধ উপচে উপজেলা পরিষদের সম্মুখে পানি ঢুকে পড়েছে। উপজেলা পরিষদের সম্মুখের রাস্তায় ৩ ফুট পানির নিচে তলিয়ে যায়। এছাড়াও উপজেলা পরিষদের ভবনের নিচ চলায় বিভিন্ন অফিসের ভিতরে ঢলের পানি ঢুকে পড়েছে। ঝিনাইগাতী বাজারে পাহাড়ী ঢলের পানি ঢুকে মসজিদ রোড (কাঁচা বাজারে) হাটু পানি জমে গেছে।



অপরদিকে উপজেলার ঝিনাইগাতী, দিঘীরপাড়, রামনগর, চতল, আহাম্মদনগর, বনকালি, ধানশাইল, কুচনীপাড়া, বাগেরভিটা, কাংশা, হাতিবান্ধা, লয়খা, কামারপাড়া, পাগলার মুখ, দাড়িকালিনগর, কালিনগর সহ ১৫টি গ্রামের মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। ঝিনাইগাতী উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবেল মাহমুদ বলেন, পাহাড়ি ঢলে নিম্নাঞ্চলের বেশকিছু এলাকা প্লাবিত হয়েছে। সরেজমিনে কিছু ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেছি। ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও সংশ্লিষ্টদের ক্ষয়ক্ষতি নিরূপন ও ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরির জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

আরো পড়ুন>>> ২২ দিন ইলিশ আহরণ নিষিদ্ধ

আপনার মতামত লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here