13.7 C
New York
Saturday, July 31, 2021

ঝিনাইগাতীতে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন: ভূক্তভূগী পরিবার

বিজ্ঞাপন

মোহাম্মদ দুদু মল্লিক শেরপুর জেলা প্রতিনিধিঃ শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার জারুলতলা গ্রামের সুরুজ আলীসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মিথ্যাভাবে মামলা হয়েছে বলে দাবী জানিয়ে ঐ মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা। ২৮ ডিসেম্বর শনিবার সকাল ১১টায় মানিককুড়া বাজারে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানায় আসামির লোকজন ও পরিবারের পক্ষথেকে। সংবাদ সম্মেলনে বিবাদী- সুরুজ আলী বলেন, জারুলতলা গ্রামের মোঃ চাঁন মিয়ার পুত্র মোঃ সুজন মিয়া বাদী হয়ে ঝিনাইগাতী থানায় ৫ জনের বিরুদ্ধে ৭/৩০, ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী ২০০৩ ধারায় আমাদের নামে একটি মামলা হয়েছে তা প্রতিহিংসা ও মিথ্যাভাবে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

বিজ্ঞাপন




বাদী সুজন মিয়ার কন্যা মোছাঃ সোনিয়া আক্তার (১৭), গত ১৮/০৮/২০১৯ ইং তারিখ রাতের আধারে ঝিনাইগাতী উপজেলার রামেরকুড়া গ্রামের মোঃ নজরুল ইসলামের পুত্র মারুফ ইসলামের সাথে ভালোবাসা সম্পর্ক স্থাপন করিয়া একে অপরের সাথে ঢাকায় চলে যায় এবং ২১/০৮/২০১৯ ইং তারিখে তারা একে অপরের সাথে কোর্ট এফিডেভিটের মাধ্যমে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে ঢাকায় বসবাস করতে থাকেন। বিবাহের ঘটনাটি গোপন রাখা হয়। সোনিয়া ১০/০৯/২০১৯ ইং তারিখে ঢাকা গাজীপুরের আইরিশ ডিজাইন লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠানে চাকুরী নেন। সোনিয়া আক্তার ও মারুফ ইসলাম ঢাকায় অবস্থান করিয়া একে অপরের সাথে স্বামী স্ত্রী হিসেবে ঘর সংসার করিতে থাকেন ঢাকায় ।

বিজ্ঞাপন




এদিকে সোনিয়া আক্তারের পিতা সুজন মিয়া আমাদের সাথে পারিবারিক পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সুরুজ আলী, মুনছুর আলী, জালাল উদ্দিন, আঃ হাকিম ও আজাদ মিয়াসহ আমাদের ৫ জনকে আসামী করে ঝিনাইগাতী থানায় একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে আমাদেরকে ব্যাপক হয়রানী করে আসছেন। মিথ্যা মামলায় পুলিশের ভয়ে ঘর বাড়ী ছেড়ে আমরা পালিয়ে জীবন যাপন করছি — এ মামলার আসামি হ’য়ে জেলও খেটে এসেছি, মামলাটি মিথ্যা প্রমাণের জন্য সোনিয়া আক্তারের কোর্ট মেরিজের ডকুমেন্ট এবং গাজীপুরের আইরিশ ডিজাইন লিমিটেড এর চাকুরীর নিয়োগ পত্রসহ প্রয়োজনীয় কাগজ পত্রাদি সংবাদ সম্মেলনে উপস্থাপন করেন বিবাদীগণের পক্ষে সুরুজ আলী।

বিজ্ঞাপন




এছাড়াও বিবাদীগণ সংবাদ সম্মেলনে আরো জানান, সোনিয়া আক্তারের পিতা সুজন মিয়া তার স্বামীর নিকট থেকে মেয়েকে তার বাড়ীতে এনে আটক রাখেন, বিধায় সোনিয়া আক্তারের স্বামী মারুফ ইসলাম গত ২১/১১/২০১৯ ইং তারিখে বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট “খ” অঞ্চল শেরপুর বরাবর ১০০ ধারায় স্ত্রীকে নিজ ঘরে নিয়ে সাংসারিক দামপ্ত জীবন চালাতে, একটি মামলা দায়ের করেন। মামলাটি চলমান রয়েছে বলে জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

x