টঙ্গীবাড়িতে মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান উপলক্ষে জনসচেতনতামূলক আলোচনা সভা

0
149

বাবু হাওলাদার টঙ্গীবাড়ী প্রতিনিধি-
টঙ্গীবাড়িতে মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান ২০২০ইং উপলক্ষে জনসচেতনতামূলক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টায় মুন্সিগঞ্জের টঙ্গীবাড়ি উপজেলার দিঘীরপাড় মৎস্য আড়তে স্থানীয় সকল আড়তদার,জেলে ও ব্যবসায়ী প্রতিনিধি, ইঞ্জিন চালিত নৌকা,বরফকল মালিক,বাজার কমিটির প্রতিনিধি এবং মিডিয়া কর্মীদের নিয়ে অবহিতকরণ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আগামী ১৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত মোট ২২ দিন মা ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুম উপলক্ষে সরকার মা ইলিশ সংরক্ষণে আহরণ,মজুত,বাজারজাত,
পরিবহন,বিনিময়সহ নানা নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও টঙ্গীবাড়ি উপজেলা প্রশাসন ও মৎস্য অধিদপ্তরের আয়োজনে মা ইলিশ রক্ষার্থে জনসচেতনতামূলক এ আলোচনা সভা করা হয়। এ সভায় সভাপতিত্ব করেন সদ্য যোগদানকৃত টঙ্গীবাড়ি উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা নিগার সুলতানা।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা নিগার সুলতানা তিনি তার বক্তব্যে বলেন,আগামী ১৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত ইলিশের প্রধান প্রজনন সময়,এসময় মা ইলিশ আহরণ,
বাজারজাতকরণ,মজুত,পরিবহনসহ ক্রয়-বিক্রয় এবং বিনিময়ের উপর সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সরকার।সরকারি এ আইন অমান্যকারী ব্যক্তির শাস্তি কমপক্ষে ১ থেকে ২ বছর সশ্রম কারাদণ্ড অথবা সর্বোচ্চ -৫ হাজার টাকা জরিমানা অথবা উভয় দন্ডে দন্ডিত হতে পারে।

এছাড়া দিঘীরপাড় পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোঃ আজিজুর রহমান তিনি তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে মা ইলিশ সংরক্ষণের উপর কঠোর হুশিয়ারী দিয়ে বলেন, দিঘীরপাড় বাজার মৎস্য আড়তে একটি ইলিশও কাউকে বিক্রি করতে দেয়া হবেনা। সরকার ঘোষিত এই ২২ দিন কেউ যদি মা ইলিশ ক্রয়-বিক্রয়,
আরহণ,মজুত,পরিবহন,এবং বিনিময় করেন তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,টঙ্গীবাড়ি উপজেলা সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ জাকির হোসেন মৃধা,দিঘীরপাড় পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এএসআই কামরুল ইসলামস, সাংবাদিক সোহেল টিটু, দিঘীরপাড় মৎস্য আড়তদার,ব্যবসায়ী,বাজার কমিটির প্রতিনিধি,বরফকল মালিক,মা ইলিশ বহনকারী নৌকার মালিক,মা ইলিশ আহরণকারী জেলে,স্থানীয় জনসাধারণ।

আপনার মতামত লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here