13.7 C
New York
মঙ্গলবার, জানুয়ারি ১৯, ২০২১

ত্রিশালে শর্ট সার্কিটের আগুনে বাড়ীঘর পুড়ে ছাই: ৪লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি

আরিফ রববানী ময়মনসিংহ থেকে:

বিজ্ঞাপন

ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলায় বিদ্যুতের শর্ট সার্কিটের আগুনে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। উপজেলার ৩নং কাঠাল ইউনিয়নের বন পাথালিয়া মুহুরিয়া বাড়ি এলাকায় মঙ্গলবার রাত প্রায় নয়টার দিকে উক্ত ঘটনা ঘটে। এতে ঘরে থাকা প্রয়োজনীয় নগদ অর্থ,আসবাবপত্রসহ পুরো ঘর পুড়ে প্রায় পাঁচ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে।

বিজ্ঞাপন

সূত্র মোতাবেক জানা যায়-ত্রিশাল উপজেলার কাঁঠাল ইউনিয়নের বন পাথালিয়া মুহুরিয়া বাড়ি এলাকার মৃত শাহাবুদ্দিনের পুত্র গার্মেন্টস কর্মী রমজান আলী গার্মেন্টসে চাকরীর সুবাদে গাজীপুর জেলার টঙ্গী এলাকায় থেকে শান্তা গার্মেন্টস নামক একটি শিল্প প্রতিষ্ঠানে চাকরী করে। তবে তার স্ত্রী-সন্তানরা বাড়ীতে থাকে। ঘটনার দিন ১২ই জানুয়ারী মঙ্গলবার রাতে বাড়ীতে থাকা বিদ্যুৎ সংযোগে শর্ট সার্কিটে আগুন ধরে গেলে শত চেষ্টা করেও আগুন নেভানো সম্ভব না হওয়ায় আগুন ধীরে-ধীরে বড় আকার ধারণ করে পুরো ঘরে ছেয়ে গেলে ঘরে থাকা নগদ অর্থ, আসবাবপত্রসহ পুরো ঘরটিই আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায়, এতে রমজান আলীর প্রায় ৪লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানান তিনি।

গার্মেন্টস কর্মী রমজানের স্ত্রী জানায়- সে তার সহায় সম্পত্তি না থাকায় ছেলে-মেয়ের ভবিষ্যত ভাবনায় নিজের জন্মস্থান বনপাথালিয়া ত্যাগ করে ভবিষ্যত আয় উন্নতির বিবেচনায় টঙ্গী গিয়ে শান্তা গার্মেন্টসে চাকরী করে।দীর্ঘদিন যাবৎ গার্মেন্টসে কাজ করে সে তার শেষ আশ্রয়স্থল বসত বাড়ীতে একটি ঘর করে। রমজান তার ১টি ছেলে ও ১টি মেয়ে সন্তানের ভবিষ্যত বিবেচনায় আয়-উপার্জনের তাগিদে আরো কিছু দিন গার্মেন্টসে চাকুরী করে বাড়ী এসে ছেলে-মেয়েকে সু- শিক্ষায় শিক্ষিত করা সহ সংসারে হাল ধরতে চেয়েছিলো বলে ঘরটি নির্মাণ করেছিলো,কিন্তু সর্বনাশা এই অগ্নিসংযোগ তার শেষ সম্বল কেড়ে নেওয়ায় তার মাথায় হাত বসেছে। তার আর সম্বল ও আয়-উপার্জন বলতে কিছু রইলো না।

বিজ্ঞাপন

পরে খবর পেয়ে রমজান বাড়ী এসে এমন দৃশ্য দেখে মুর্ছা যান। সে তার সব হারিয়ে অজ্ঞান হয়ে মুমুর্ষ অবস্থায় আশঙ্কাজনক হয়ে গেলে স্থানীয়রা তাকে মাথায় পানি দিলে প্রায় ২ঘন্টা পর কিছুটা সুস্থতা বোধ করেন। এ ব্যাপারে কাঠাল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন কামাল জানায়-সে অগ্নিসংযোগের খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে ত্রিশাল উপজেলা ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলেও রমজানের বাড়ী ইউনিয়নের ভিতরে গ্রামে হওয়ায় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে আসার পুর্বেই বাড়ী পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

তিনি-আগুনে পুড়া ক্ষতিগ্রস্ত অসুস্থ রমজান আলীর সাথে দেকা করে তাকে শান্তনা দেন এবং বাড়ীটি যাতে আবারো পুণঃ নির্মান করে অসহায় পরিবার টি আশ্রয়ের ব্যবস্থা করা যায় সে ব্যাপারে সার্বিকভাবে সহায়তার আশ্বাস ছাড়াও অসহায় রমজান আলীকে সরকারীভাবে সহায়তা করার লক্ষে ত্রিশাল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের সাথে এ ব্যাপারে কথা বলেন এবং উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবগত করে প্রশাসনিকভাবে রমজানকে বাড়ী নির্মাণের সার্বিক সহযোগিতা করতে অনুরোধ করেছেন বলেও জানান তিন ।

বিজ্ঞাপন

এ ব্যাপারে অসহায় রমজান আলী তার ছেলে-মেয়ের ভবিষ্যত বিবেচনায় প্রশাসনিক কর্মকর্তা সহ সমাজের বিত্তশালীদের সার্বিক সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন।

আরো পড়ুন: বেতন না পেয়ে শিক্ষক-কর্মচারীর মানবেতর জীবন-যাপন

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ সংবাদ

x