দুর্গাপুরে প্রতিবন্ধী পরিবারের রাস্তা বন্ধ,গৃহবধূকে বেধড়ক মারপিটের অভিযোগ

দুর্গাপুরে প্রতিবন্ধী পরিবারের রাস্তা বন্ধ,গৃহবধূকে বেধড়ক মারপিটের অভিযোগ

কলিহাসান,দুর্গাপুর(নেত্রকোনা)প্রতিনিধি:
নেত্রকোনার দুুর্গাপুরে বিরিশিরি ইউনিয়নের শিরবির গ্রামের মৃত রস্তম আলীর দাঙ্গাবাজ পুত্র মো. রফিকুল ইসলাম একই গ্রামের মৃত আব্দুল জব্বারের ছেলে শফিকুলের স্ত্রী জরিনা খাতুনকে বেদম মারপিট,বাড়ি থেকে বের হওয়ার রাস্তা বন্ধ করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে সরেজমিন ঘুরে ওই প্রতিবন্ধী পরিবারের রাস্তা অবরোধের চিত্র দেখা গেছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে মারপিঠের শিকার শফিকুলের স্ত্রী জরিনা খাতুন (৩২)। এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার গুরুতর আহতের স্বামী শফিকুল ইসলাম দুর্গাপুর থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে দুর্গাপুর থানার উপ-পরিদর্শক ইমরুল হাসান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে রাস্তা বন্ধে নির্মিত বাঁশের বেড়া ভেঙে তৎক্ষনাত সরাতে বলেন।



স্থানীয় ও অভিযোগের বিবরণে জানা যায়, শফিকুল ইসলাম পেশায় একজন দিনমজুর। বাবা মারা যাওয়ার পর এক প্রতিবন্ধী ভাই,মা,স্ত্রী ও সন্তান নিয়ে কোনমত সংসার চলছে। বাড়ির চারপাশে রফিকুলের জায়গা-জমি রয়েছে। বাড়ি থেকে বের হলে ওদের জায়গার উপর দিয়ে বের হতে হয়। তিল পরিমান কথাবার্তার এদিক-সেদিক হলেই রফিকুল ও অপর ভাই মিলে বখা বাদ্য শুরু করে। ওদের জায়গার উপর যাতে পা না পড়ে এমন হুসিয়ারী দিতে থাকেন রফিকুল ইসলাম। নানাভাবে চাপ দেয় যাতে পিতার রেখে যাওয়া একমাত্র বাড়ির জায়গাটুকু ওর কাছে বিক্রি করে দেই। জমি বিক্রি না করাই এর জের ধরে রফিকুল ইসলাম তার বাড়ির চারপাশে অন্যায়ভাবে বাঁশ দিয়ে বেড়া দেয়। কেউ যাতে বাড়ি থেকে বের হতে না পারে।



গত মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে রফিকুল তার পরিবারের লোকজন লাঠি সোটা নিয়ে শফিকুলের বসতঘরে প্রবেশ করে স্ত্রীকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল ও বেধড়ক মারপিট করে। শফিকুলের স্ত্রীর ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে ।
এ ব্যাপারে দুর্গাপুর থানার ওসি শাহনুর-এ-আলম জানান, শফিকুলের একটি অভিযোগ পেয়েছি । ঘটনাস্থলে পুলিশ পাটানো হয়েছে। ঘটনাটি পুরোদস্তর তদন্ত চলছে। তদন্ত প্রেক্ষিত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরো পড়ুন>>> কিশোর বেলার কথা

আপনার মতামত লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here