দেওয়ানগঞ্জে মাদক ব্যবসায়ী সন্দেহে একজন আটক, বিজিবি ও জনতার বাকবিতণ্ডা, মিছিল

হারুন অর রশিদ দেওয়ানগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি

0
1

শুক্রবার সকালে জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার সীমান্ত এলাকা বাঘারচর বাজার থেকে বিজিবি এফ এস মাদক ব্যবসায়ী সন্দেহে একজনকে আটক করলে এ ঘটনার সুত্রপাত হয়।

আটককৃত ব্যক্তি রৌমারী উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়নের বকবান্দা গ্রামের বাহাদুর ব্যাপারী পুত্র ইউসুফ আলী (৩৫)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা সাংবাদিকদের জানায় আটককৃত ব্যক্তি গরুর মাংস কেনার উদ্দেশ্যে বাঘারচর বাজারে এলে বিজিবি এফ এস মহিউদ্দিন ও সোহাগ তাঁর পকেটে মাদক দ্রব্য ঢুকিয়ে গ্রেফতার করার চেষ্টা করলে উপস্থিত জনতা তার প্রতিবাদ করায় কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে পরিস্থিতি ব্যাপক আকার ধারণ করে। ততক্ষণে বাঘারচর,পাথরের চর,ও বালিয়ামারী বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা ঘটনা স্থলে পৌছালে উৎসুক জনতা আরও ক্ষিপ্ত হয় ও মিছিল বের করে। স্হানীয় জনপ্রতিনিধি ও নেতাকর্মীরা বিষয়টি নিরসনের অঙ্গিকার দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এব্যাপারে আটককৃত ব্যাক্তিকে জিজ্ঞেস করলে সে জানায় আমি অনুষ্ঠানের জন্য মাংশ কিনতে আসলে এলাকায় মাংস না পেয়ে বাঘারচর বাজারে আসি,সে সময় বিজিবি এফ এস আমার পকেটে মাদক দ্রব্য ঢুকিয়ে আমাকে আটক কারার চেষ্টা করলে আমি চিৎকার করি এ সময় আশেপাশের লোকজন এসে আমাকে উদ্ধার করে।

বিজিবি এফ এস বলেন, তার কাছে মাদক ছিলো সে এখন অস্বীকার করছে,তার বিরুদ্ধে মাদক কারবারির অভিযোগ রয়েছে এবং তার বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্যের মামলাও রয়েছে,সে একজন মাদক ব্যবসায়ী।

বাঘারচর বিজিবি ক্যাম্পের দায়িত্বরত অফিসারের সাথে কথা বললে তিনি সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন এব্যাপারে আপনাদের সাথে কথা বলার আমার অনুমতি নেই, আপনারা আমাদের মুখপাত্রের সাথে কথা বলেন।

বিষয়টি সম্পর্কে সানন্দবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের অফিসার ইনচার্জ কে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন আমি খবর শোনার পরপরই ঘটনাস্হলে যাই,সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীর বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্হা নেওয়া হবে।
এখবর লেখা পর্যন্ত বিশেষ শর্তে অভিযুক্ত ব্যাক্তিকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ ফুলপুরে বিএমএসএফ’র কমিটি গঠন