ধর্মপাশায় বাঁধ কাটার অভিযোক্ত ব্যাক্তিকে পিআইসি কমিটির সভাপতি করার অভিযোগ - durjoy bangla | দুর্জয় বাংলা

মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০, ০২:০৮ পূর্বাহ্ন




ধর্মপাশায় বাঁধ কাটার অভিযোক্ত ব্যাক্তিকে পিআইসি কমিটির সভাপতি করার অভিযোগ

ধর্মপাশায় বাঁধ কাটার অভিযোক্ত ব্যাক্তিকে পিআইসি কমিটির সভাপতি করার অভিযোগ

অভিযোগ




ধর্মপাশা (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি ঃ 
সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা  উপজেলায় পাউবোর অধীনে থাকা কাইলানী নামক হাওরে চলতি বছরে ফসলরক্ষা বাঁধের কাজে বাঁধখেকো হিসেবে পরিচিত  পরিমল মজুমদারকে ৫৭ নম্বর প্রকল্পের  সভাপতি করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এরই প্রতিবাদে গত রবিবার দুপুরে বাঁধ সংলগ্ন উপজেলার সানবাড়ী গ্রামের ৩০ জন কৃষকের স্বাক্ষরিত একটি লিখিত অভিযোগ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবর দায়ের করা হয়েছে।

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার জয়শ্রী ইউনিয়নের সানবাড়ী গ্রামের বাসিন্দা পরিমল মজুমদার বিগত প্রত্যেক বছরে পানি আসার শুরুতেই বৈশাখ- জৈষ্ট মাসে পাউবোর নির্মিত ফসলরক্ষা বাঁধ কেটে মাছ ধরে আসছে।সে এলাকায় বাঁধখেকো হিসেবে পরিচিত। কিন্তু এসও মাহমুদুল ইসলামের যোগসাজশে ওই অভিযোক্ত ব্যাক্তি চলতি বছরের ফসলরক্ষা বাঁধের  ৫৭ নম্বর প্রকল্পের সভাপতি হন। বাঁধের কাজের দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকেই মৎস্য সংরক্ষনের উদ্দেশ্যে তার নিজের জমিতে বিশাল আকৃতির পুকুর করার পরিকল্পনা নিয়ে মূল বাঁধে মাটিভরাট না করে তার সুবিধামতো জায়গায় মাটিভরাট করার পায়তারা করছেন।




আরোও জানা যায়, একই গ্রামের বাসিন্দা 
অসীম কুমার তালুকদারকে প্রকৃত কৃষক হিসেবে কাইলানী হাওরের ফসলরক্ষা বাঁধ মেরামত কাজে ৫৭ নম্বর প্রকল্প কমিটির সভাপতি করা হয়। এবং উপজেলা কাবিটা বাস্তবায়ন কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তিনি উক্ত বাঁধ মেরামতের কাজ করে আসছিলেন এবং ব্যাংক হিসাব খোলা হয়েছিল। 

কাজ চলমান অবস্থায় কোন নোটিশ ছাড়াই কৃষকদের পছন্দের প্রকল্প সভাপতি ওসীম কুমার তালুকদারকে কমিটি থেকে বাদ দিয়ে পরিমল মজুমদারকে সভাপতি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে  অসীম কুমার তালুকদার বলেন, বাঁধ মেরামত কাজের কমিটি গঠনে এলাকার কৃষকদের সমন্বয়ে  গন শুনানিতে সর্বসম্মতিক্রমে   প্রকৃত  কৃষক হিসেবে আমাকে ওই ৫৭ নম্বর প্রকল্প কমিটির সভাপতি করা হয়।

সে অনুযায়ী কর্তৃপক্ষ চুক্তিপত্রের মাধ্যমে আমাকে  এ কাজ বুঝিয়ে দেয়ার পরপরই আমি   এলাকার মহাজনদের কাছ থেকে প্রায় আড়াই লাখ টাকা ধার-দেনা করে আমি ওই বাঁধের কাজে খরছ করেছি। তিনি আরো বলেন, কাজের চুক্তিপত্রের খরচ বাবদ এসও মাহমুদুল ইসলামের কথামতো কার্যসহকারী  অনন্ত সরকারের হাতে   আড়াই হাজার টাকাও  দিয়েছি। কিন্তু নিয়মানুযায়ী  বাঁধের কাজ চলমান অবস্থায় রহস্যজনক কারনে আমাকে না জানিয়ে এলাকার চিন্হিত বাঁধ খেকো পরিমল মজুমদারকে দিয়ে বাঁধ মেরামতের কাজ করানো হচ্ছে।




 এ ছাড়াও চুক্তিপত্রের খরছ দেখিয়ে আড়াই হাজার থেকে তিন হাজার টাকা করে রাখা হয়েছে বলে (এসও) মাহমুদুল ইসলামের বিরুদ্ধে একাধিক প্রকল্পের সভাপতির অভিযোগ রয়েছে। 

 পরিমল মজুমদার বলেন,আমি ইউএনও স্যারের অনুমতি নিয়ে বাঁধের কাজ করছি। গত  ফেব্রুয়ারি মাসের ২৬ তারিখে বরাদ্দের আংশিক টাকার চেক পেয়ে বাঁধের কাজ করছি। এখনও কাজের চুক্তিপত্র হয়নি।অসীম কুমার তালুকদার এ বাঁধের  কিছু কাজ করেছেন বলে স্বীকার করেছেন তিনি।

সুনামগঞ্জ পানিউন্নয়ন বোর্ডের উপসহকারী প্রকৌশলী ও উপজেলা কাবিটা প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির সদস্য সচিব মাহমুদুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ৫৭ নম্বর প্রকল্পের সভাপতি  ওসীম কুমার তালুকদারকে নীতিমালা অনুযায়ী বাদ দেয়া হয়েছে। তবে ওসীম তালুকদারেকে কোন নোটিশ ছাড়াই বাদ দেয়া হয়েছে কিনা বা তার সাথে কাজের চুক্তিপত্র হয়েছিল কিনা জানতে চাইলে তিনি আর কোন কথা না বলে ফোন রেখে দেন। পরে ফোন করার পর রিসিভড করেননি তিনি। 

উপজেলা কাবিটা বাস্তবায়ন প্রকল্পের সভাপতি ও উপজেলা (ভারপ্রাপ্ত) কর্মকর্তা মো. আবু তালেব বলেন, বাঁধের কাছে  পরিমল মজুমদারের প্রচুর জমি রয়েছে। সে জন্যই তাকে ৫৭ নম্বর প্রকল্পের সভাপতি করা হয়েছে। অসীম কুমার তালুকদারের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ ছিলনা। কোন প্রকল্প চেয়ারম্যানকে কমিটি থেকে বাদ দেয়া হলে নোটিশ দেয়ার প্রয়োজন হয়না।

 নোটিশ ছাড়াই তাকে বাদ দেয়া হয়েছে। চুক্তিপত্র বাবদ টাকা রাখার বিষয়টি প্রমানিত হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি। 

আরো পড়ুন>>> ভিন্ন ভাবনা

নিউজটি সেয়ার করার জন্য অনুরোধ রইল!


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আর্কাইভ অনুসন্ধান

আজকের কুইজ

সৌরজগতের বৃহত্তম গ্রহ কোনটি?

ফলাফল জেনে নিন

Loading ... Loading ...
google map durjoybangla




আজকের নামাজের সময় সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:৪৬ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০৮ অপরাহ্ণ
  • ৪:২৮ অপরাহ্ণ
  • ৬:১৫ অপরাহ্ণ
  • ৭:২৮ অপরাহ্ণ
  • ৫:৫৭ পূর্বাহ্ণ

বন্দরনগরী চট্টগ্রামে গাড়ি জগতে আমদানিকারকের একটি বিশস্ত প্রতিষ্ঠান auto cox

auto cox_durjoybangla.com




©২০১৩-২০২০ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | দুর্জয় বাংলা
Desing & Developed BY DurjoyBangla