পালং শাক রক্তস্বল্পতা দূর করবে

লাইফস্টাইল ডেস্ক:

শাক-সবজি আমাদের শরীরের জন্য নানাভাবে উপকার বয়ে আনে। শাকের মধ্যে পালং শাক বেশ উপকারী। পালংশাক আমাদের শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। এতে আছে পটাশিয়াম। এই খনিজ শরীরের সোডিয়াম বা লবণের হারিয়ে যাওয়া ভারসাম্য ফিরে আনতে সাহায্য করে।

পালং শাকে থাকা ফলেট রক্তচাপ স্বাভাবিক রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। এতে প্রচুর ভিটামিন সি এবং বিটা কেরোটিন রয়েছে। এই দুই উপাদান কোলনের কোষগুলোকে রক্ষা করে। রয়েছে লুটেইন নামক পদার্থ রয়েছে যা খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কম করে হৃদরোগের ঝুঁকির হাত থেকে রক্ষা করে। এতে থাকা ফলিক অ্যসিড সুস্থ কার্ডিওভাসকুলার সিস্টেমের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।



অ্যন্টিঅক্সিডেন্ট মস্তিষ্কের কোষগুলোকে সুস্থ, সতেজ এবং কর্মক্ষম রাখে। পালং শাকে আছে প্রচুর অ্যন্টিঅক্সিডেন্ট। বাতের ব্যথা, অস্টিওপোরোসিসের ব্যথা যন্ত্রণায় প্রদাহনাশক হিসেবে পালং শাক খুব ভালো কাজ করে। মাইগ্রেনের মতো সমস্যায় পালং শাকের খাদ্যগুণ খুবই উপকারী।

পালং শাকে আছে প্রচুর আয়রন ও ভিটামিন সি। এগুলো রক্তস্বল্পতা দূর করে। এই শাকে প্রচুর আয়রন থাকায় তা হিমোগ্লোবিন তৈরি করে। এতে থাকা বেশি মাত্রার ভিটামিন এ লিম্ফোসাইট বা রক্তের শ্বেত কণিকার প্রয়োজনীয় মাত্রা বজায় রাখতে সাহায্য করে।



পালং শাকে আছে অ্যামাইনো অ্যাসিড। এটি এমন একটি উপাদান, যা মেটাবলিজম রেট বাড়াতে সাহায্য করে। ফলে হজম ক্ষমতার উন্নতি হয়। ফলে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়।
বিশেষজ্ঞের মতে, পরিমাণ মতো ও নিয়মিত পালং শাক খেলে কিডনিতে পাথর থাকলে, তা গুঁড়া হয়ে বেরিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়। পালং শাকে প্রচুর ক্যালসিয়াম আছে, দাঁত ও হাড়ের ক্ষয়রোধে কার্যকর ভূমিকা পালন করে।

পালং শাকে প্রচুর ভিটামিন ও মিনারেলস আছে। তাই পালং শাক নিয়মিত খেলে মাসিকজনিত সমস্যা দূর হয়। পালং শাকে ১৩ প্রকার ফাভোনয়েডস আছে। এই ফাভোনয়েডস ক্যানসার প্রতিরোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বিশেষ করে প্রোস্টেট ক্যান্সার প্রতিরোধে এটি খুবই কার্যকরী।

আরো পড়ুন: আইপিএল ফাইনালে ৫৮ কোটি টাকার পুরস্কার

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here