ফ্রান্সে মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.)কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করায় টঙ্গীবাড়িতে তৌহিদী জনতার বিক্ষোভ

বাবু হাওলাদার টঙ্গীবাড়ী উপজেলা প্রতিনিধি

ফ্রান্সে মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.)কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করায় মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার বিভিন্ন মসজিদ-
মাদ্রাসা এবং সর্বস্তরের তৌহিদী জনতা বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ মিছিল করেছেন।

শুক্রবার (৩০ অক্টোবর)বাদজুম্মা দিঘীরপাড় বাজার কেন্দ্রীয় জামেমসজিদের আয়োজনে সর্বস্তরের তৌহিদী জনতা এ বিক্ষোভ মিছিলে অংশগ্রহণ করেন।বাদ জুম্মা দিঘীরপাড় বাজার কেন্দ্রীয় জামেমসজিদ হতে বিক্ষোভ মিছিলটি দিঘীরপাড় পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের সদস্যদের পাহারায় উপজেলার দিঘীরপাড় ও কামারখাড়া মহা সড়ক প্রদক্ষিণ করে কামারখাড়া ইউনিয়নের বেশনাল এলাকায় গিয়ে মিলিত হয়।

এতে দিঘীরপাড়,কামারখাড়া এবং সদর উপজেলার শিলই ইউনিয়নের বেশ কিছু মসজিদের ইমাম,
মুয়াজ্জিন ও মুসল্লিগণ মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.)কে অবমাননা ও কটুক্তি করায় ফ্রান্সের বিরুদ্ধে তৌহিদী জনতা বিভিন্ন স্লোগান দিতে দিতে একত্রিত হয়ে বেশনাল এলাকায় জমায়েত হয়।এছাড়া কামারখাড়া ইউনিয়নের মিতারা আশরাফুল উলুম মাদ্রাসা ও বেশনাল মদিনাতুল উলুম মাদ্রাসার ছাত্র-শিক্ষকগণ এতে অংশগ্রহণ করেন।

সাম্প্রতিক ফ্রান্সে মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.)কে নিয়ে ফ্রান্সের বিভিন্ন স্থানে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে এ বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করা হয়।উপস্থিত তৌহিদী জনতাকে ফ্রান্সের পণ্য বর্জনসহ বিভিন্ন দাবি-দাওয়া তুলে ধরেন বক্তারা।

এতে মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রেষ্ঠ করদাতা ও সমাজ সেবক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব মজিবুর রহমান সরদার মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.)কে অবমাননা করায় তীব্র নিন্দা ও সকলকে ফ্রান্সের পণ্য বর্জনের আহবান জানান।

কামারখাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন হালদার তাঁর বক্তব্যে বলেন,আমরা মুসলিম আমরা আমাদের বিশ্বনবী হযরত মোহাম্মদ (সা.)কে নিয়ে কটুক্তি,ব্যঙ্গচিত্র কোন ধরনের অবমাননা সহ্য করবো না।

দিঘীরপাড় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম ও খতীব মুফতী ইমদাদুল হক আরেফী সমাপনী বক্তব্যে তৌহিদী জনতার পক্ষ থেকে বাংলাদেশ সরকারের কাছে ৩ দফা প্রস্তাবনা তুলে ধরেন,১/ রাষ্ট্রীয়ভাবে ফ্রান্সের পণ্য বর্জন। ২/ সংসদ অধিবেশন ডেকে রাষ্ট্রীয়ভাবে নিন্দা প্রস্তাব দেয়া। ৩/ ফ্রান্সের সাথে কুটনৈতিক সম্পর্ক বর্জন করতে হবে। এছাড়া ফ্রান্স সরকার ক্ষমা না চাওয়া পর্যন্ত প্রতিবাদ অব্যাহত রাখার হুশিয়ারী ও দেন তিনি।

পরে মিতারা আশরাফুল উলূম মাদ্রাসার মহতামিম,
মুফতী মোস্তাফিজুর রহমান নোমানী মুনাজাতের মধ্য দিয়ে এ প্রতিবাদ মিছিলের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here