13.7 C
New York
বৃহস্পতিবার, জুন ১৭, ২০২১

বকশীগঞ্জে মৃদু শৈত্য প্রবাহ বেড়ে চলেছে

বিজ্ঞাপন

আফজাল শরীফ জামালপুর জেলা প্রতিনিধিঃ

বিজ্ঞাপন

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলা ভারতীয়  মেঘালয় সীমান্তবত্তী এলাকায় ক্রমাগত তাপমাত্রা হ্রাস পেয়ে মৃদু শৈত্য প্রবাহে বিপর্যস্থ হয়ে পড়েছে বকশীগঞ্জ উপজেলার জনজীবন।

এ অবস্থায় ঘন কুয়াশার সাথে হিমেল হাওয়ায় ভোগান্তি বাড়ছে মানুষের। গরম কাপড়ের অভাবে চরম দুর্ভোগে পড়েছে শিশু-বৃদ্ধসহ শ্রমজীবী ও ছিন্নমুল মানুষের।

বিজ্ঞাপন




দিনের বেলায় সূর্যের দেখা না মেলায় বেড়েই চলেছে শীতের তীব্রতা। শীতের তীব্রতা থাকার কারণে শ্রমজীবি মানুষ কোন কাজকর্ম করতে পারছে না। যতই দিন যাচ্ছে ততই শীতের শৈত্য প্রবাহ আরোও বাড়ছে।

বিজ্ঞাপন

এ অবস্থায় জেলার চরাঞ্চলের মানুষেরা খড়-কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারনের চেষ্টা করছেন। শিশু, বৃদ্ধ ও গবাদি পশু নিয়ে বিপাকে পড়েছে চরাঞ্চলের বাসিন্দারা। জব্বারগঞ্জ বাজার এলাকার শাহিন ও জিল্লুর রহমান জানান, সারাদিন একবারের জন্যও সুর্য দেখা যায়নি।




একারণে ঠান্ডা খুব বেশি। হাত-পা বাইরে বের করা যায় না। কলকিহারার বাসিন্দা আঃ রাজ্জাক জানান, এমনিতেই আমরা চরের মানুষ সব সময় অভাবে থাকি। গরম কাপড় কেনার টাকা পয়সা বেশির ভাগ মানুষের নেই। তাই শীতের সময় খুব কষ্ট হয়।




যে ঠান্ডা পড়েছে তাতে কাজ কর্ম করতে পারছি না। ছোট ছোট বাচ্চাদের নিয়ে খুব কষ্টে আছি। তাছাড়া গত কয়েক দিন ধরে শীতের পার্দুভাবটা বেড়েছে। এই ঠান্ডার সময় ধনাট্য ব্যক্তিদের শীতের পোষাক নিয়ে গরিব দের  মাঝে বিতরণ করা দরকার।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ সংবাদ

x
error: Content is protected !!