13.7 C
New York
বৃহস্পতিবার, আগস্ট ৫, ২০২১

বরিশাল সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সম্পাদক সুজনের উপর পরিকল্পিত হামলার ঘটনায় জনমনে ক্ষোভ

বিজ্ঞাপন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
বরিশাল সদর উপজেলার ছাত্র লীগের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান সুজনের উপর হামলার ঘটনার পর মামলার গুঞ্জনে ক্ষোভে ফুসে উঠেছে স্থানীয় সাধারণ মানুষ। পরিকল্পিত ষড়যন্ত্রের ফাঁদে পা দিয়ে হামলার শিকার হন সুজন এমনটাই মনে করছেন স্থানীয়রা। জানাগেছে, বেশ কয়েকদিন যাবৎ ভোলার তুহিন নামের এক ব্যক্তির সাথে অর্থনৈতিক লেনদেন নিয়ে সুজন ও তার কর্মী শুভ’র সাথে বাকবিতন্ডা চলছিল। তুহিন শুভ’র আপন ভাই এবং সেও রাহাতের কাছে প্রায় ২ ল টাকা পায়। তারই ধারাবাহিকতায় রাহাত গত দুদিন ধরে সুজনকে মিথ্যা মামলায় জড়ানো, গুজব রটিয়ে রাজনৈতিক তি করার হুমকি দেয়। ছাত্রলীগের নেতা সুজনের সাথে বিষয়টি মীমাংসা করতে শালিসি ডাকে প্রতিপক্সের লোকজন। ঘটনাস্থলে সুজন পৌছালে চা-নাশতার অযুহাতে অনেকণ সময় নষ্ট করে মাগরিবের পর প্রায় সাতটার দিকে পূর্ব পরিকল্পনার বাস্তবে রূপ দেয় রাহাত ও তার বাহিনী। তারা সুজনসহ তার অনুসারীদের উপর লাঠি, ক্রিকেট ব্যাটসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা করে এবং সবাইকে মারধর করে। এসময় সুজন জীবন বাঁচাতে দৌড়ে একটি দোকানের ভিতর ঢুকে ওই দোকানের শাটার বন্ধ করে পুলিশকে ফোন দেয়। এসময় বাইরে থাকা রাহাত ও তার গ্রæপের আর সুজনের অনুসারীদের কোন্দলে ভুলক্রমে রাহাতকেই মাথায় আঘাত করে রাহাতের নিজের ক্যাডার। এদিকে হাতুড়ি পেটা করা হয় সুজনের কর্মী শুভকে। গুরুতর আহত অবস্থায় পুলিশ সুজন ও শুভকে উদ্ধার করে। আর রাহাতকে তার স্বজনরা চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যায়।
ঘটনাস্থলে থাকা লোকজনের ভাষ্যমতে, সুজন ও তার অনুসারীরা একটি মিমাংসা করতে এখানে এসেছে। কিন্তু শালিসি হয়নি। রাহাত ও তার লোকজন হামলা করে সুজনদের মারধর করে, তবে কি কারনে তা জানিনা। তবে শুনেছি টাকা লেনদেন সংক্রান্ত বিষয়।
আহত রাহাতের ভাই রাব্বি জানান, সন্ধ্যার পর বরিশাল সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান সুজন তার সহযোগীদের নিয়ে মোল্লাবাড়ি স্ট্যান্ডে অবস্থান নেয় ও রাহাতকে মারধর করে। এসময় রাহাত গুরুতর আহত হয়। তাকে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হওয়ার পর তাকে ঢাকা পাঠানো হয়েছে।
ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ধলু মোল্লা আহতের বরাত দিয়ে জানান, সুজনের পরিচিত এক লোকের কাছে টাকা লেনদেনের বিষয়ে এ মারামারি।
বরিশাল সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান সুজন বলেন, রাহাতের সঙ্গে ভোলার তুহিনের লেনদেন আছে। রাহাতের কাছে ১ লাখ ৭২ হাজার টাকা পায় তুহিন। তুহিন ও তার ছোটভাই ছাত্রলীগের শুভ এ বিষয়ে আমাকে অবহিত করেন।
বন্দর থানার ভারপাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন তালুকদার বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

x