বলাইশিমুলের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করবেন শিক্ষক নেতা আব্দুল আউয়াল মন্ডল

বলাইশিমুলের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করবেন শিক্ষক নেতা আব্দুল আউয়াল মন্ডল

সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

কেন্দুয়া উপজেলার ০৮ নং বলাইশিমুল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করবেন শিক্ষক নেতা আব্দুল আউয়াল মন্ডল। সে লক্ষ্যে তিনি স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাঠে গণযোগাযোগ রক্ষা করে চলছেন। আব্দুল আউয়াল মন্ডলের জন্ম ১৯৫৭ সালে। তিনি বলাইশিমুল গ্রামের (রাজাইল) মৃত মিজাজ আলী মন্ডলের ছেলে। তার মা আমেনা খাতুন। ১৯৭২ সনে আশুজিয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এস.এস.সি পাস করার পর প্রাথমিক শিক্ষক পদে চাকরিতে যোগদান করেন। ১৯৬৮ সনে তিনি ছাত্র ইউনিয়নের রাজনীতির সঙ্গে এবং ১৯৬৯ সালে ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন।



শিক্ষকতার পাশাপাশি ১৯৮০ সন থেকে ৮৪ সন পর্যন্ত কেন্দুয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির ক্রীড়া সম্পাদক এবং একই পদে ১৯৮৫ থেকে ৯০ সাল পর্যন্ত সাংগঠনিক দায়িত্ব পালন করেন। আব্দুল আউয়াল মন্ডল ১৯৯১ সাল থেকে ৯৫ সাল পর্যন্ত শিক্ষক সমিতির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক এবং ১৯৯৬ সাল থেকে ৯৮ সাল পর্যন্ত ওই সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৯ সনে তিনি চাকরি ছেড়ে দিয়ে ২০০১ সালে বলাইশিমুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে অংশ নিয়ে নিকটতম প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দিতা করেন। ২০০২ সাল থেকে একবার কেন্দুয়া উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারন সম্পাদক এবং বর্তমানে সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তিনি নেত্রকোনা জেলা জাতীয় পার্টির সহসভাপতির পদেও দায়িত্ব পালন করছেন।



দাম্পত্য জীবনে তিনি ৩ সন্তানের জনক। দুই ছেলে এক কন্যা সন্তানের মধ্যে বড় ছেলে এ.এম জুলফিকার ইয়ার মন্ডল অগ্রনী ব্যাংক কেন্দুয়া শাখার সিনিয়র অফিসার এবং ছোট ছেলে আবু আশরাফ মন্ডল শিবপুর বাউশারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক। কন্যা ক্যামেলিয়া আনার মন্ডল নোয়াদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক। তার স্ত্রী রশিদা খানম পরিবার পরিকল্পনা বিভাগে ঋডঅ পদে কর্মরত আছেন। শিক্ষক নেতা আব্দুল আউয়াল মন্ডল বলেন, বর্তমানে রাজনীতি ও অবসর জীবনে আমার কোন অর্থের চাহিদা নেই। অর্থনৈতিক ভাবে আমি সয়ংসম্পূর্ণ। জনগণের সেবা করার জন্যই আমি চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে চাই।

আরো পড়ুন: সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

আপনার মতামত লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here