13.7 C
New York
রবিবার, এপ্রিল ১১, ২০২১

বাঁচতে চাই তাসফিয়া আক্তার

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রামের আকবরশাহ থানাধীন উত্তর কাট্টলী এলাকার মুরাদ চৌধুরী বাড়ির মোঃ শফি উদ্দিনের মেজ মেয়ে তাসফিয়া আক্তার (১৭) এর একটি কিডনি সম্পূর্ণভাবে নষ্ট এবং তার ২য় কিডনি নষ্ট হওয়ার পথে। বাঁচতে চাই তাসফিয়া সবার সহযোগিতায়।দরিদ্র বাবা শফি উদ্দিনের অর্থের অভাবে তার মেজ মেয়ের চিকিৎসা করাতে পারছেন না। মেয়েকে বাঁচাতে তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।তাসফিয়ার জম্ম ২০০৪ সালে।আকবর শাহ থানাধীন ১০ নং উত্তর কাট্টলীর সিটি করপোরেশন গার্লস স্কুলে নবম শ্রেণী পর্যন্ত পড়াশোনা করেন তাসফিয়া।বাবা পড়াশোনার খরচ চালাতে না পারায় বন্ধ হয়ে যায় এগিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন তাসফিয়ার।

বিজ্ঞাপন

মাসকানেক আগে স্থানীয় ডাক্তারের পরামর্শে পরীক্ষা নিরীক্ষা করায় তাসফিয়ার কিডনি রোগ ধরা পড়ে।জুরুরিভাবে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। চিকিৎসাধীন থাকলেও ডাক্তাররা তাকে দ্রুত কিডনি ট্রান্সপারেন্ট করার কথা জানান।তার কিডনি ট্রান্সপারেন্ট করাতে দশ লক্ষ টাকা খরচ আসতে পারে বলে জানান চিকিৎসাধীন ডাক্তাররা।মেডিকেল থেকে রিলিজ করে দেয়ায় বর্তমানে তাসফিয়া তার নিজ বাসায়। বয়স কম হওয়ায় ডায়ালাইসিস করালেও সমস্যা হতে পারে বলে জানান, চিকিৎসাধীন ডাক্তাররা।দিন দিন তার শারীরিক সমস্যা জটিল থেকে জটিলতর হচ্ছে। দেশে বৃত্তবানরা যদি একটু সহানুভূতির হাত বাড়িয়ে দেন তবে এই মেধাবী ছাত্রীটি হয়তো আরও কিছুদিন বেঁচে থাকতে পারবে।
কিডনী কেনা ও প্রতিস্থাপনের সামর্থ্য নেই দরিদ্র এ পরিবারটির। তাসফিয়াকে বাঁচাতে গর্ভধারিনী মা মরজিনা আক্তার নিজের একটি কিডনী দিতে প্রস্তুত আছেন। কিন্তু প্রতিস্থাপনের জন্য ৯ থেকে ১০ লাখ টাকার প্রয়োজন। যা দেয়ার সামর্থ্য তাদের নেই। তাই মেয়েকে বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীসহ দেশের সর্বস্তরের মানুষের কাছে সাহায্যের আকুল আবেদন জানিয়েছে তাসফিয়া আক্তারের অসহায় বাবা-মা। সাহায্য পাঠাতে সরাসরি যোগাযোগ করুনঃ-০১৮৫৬৪৭৪১১৪ ( মা) বিকাশঃ-০১৮৪১০৩৩২১৬ রকেটঃ-০১৮৪১০৩৩২১৬৬

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

x