1. durjoybangla24@gmail.com : durjoy bangla : durjoy bangla
  2. afzalhossain.bokshi13@gmail.com : Afjal Sharif : Afjal Sharif
  3. aponsordar122@gmail.com : Apon Sordar : Apon Sordar
  4. awal.thakurgaon2020@gmail.com : abdul awal : abdul awal
  5. sheblikhan56@gmail.com : Shebli Shadik Khan : Shebli Shadik Khan
  6. jahangirfa@yahoo.om : Jahangir Alam : Jahangir Alam
  7. mitudailybijoy2017@gmail.com : শারমীন সুলতানা মিতু : শারমীন সুলতানা মিতু
  8. nasimsarder84@gmail.com : Nasim Ahmed Riyad : Nasim Ahmed Riyad
  9. netfa1999@gmail.com : faruk ahemed : faruk ahemed
  10. mdsayedhossain5@gmail.com : Md Sayed Hossain : Md Sayed Hossain
  11. absrone702@gmail.com : abs rone : abs rone
  12. sumonpatwary2050@gmail.com : saiful : Saiful Islan
  13. animashd20@gmail.com : Animas Das : Animas Das
  14. Shorifsalehinbd24@gmail.com : Shorif salehin : Shorif salehin
  15. sbskendua@gmail.com : Samorendra Bishow Sorma : Samorendra Bishow Sorma
  16. swapan.das656@gmail.com : Swapan Des : Swapan Des
  17. washimahemed82093@gmail.com : washim ahemed : washim ahemed
ব্রাহ্মণবাড়িয়া উপজেলার পিআইও’র অফিস সহকারীর হাতে আলাদিনের চেরাগ - durjoy bangla | দুর্জয় বাংলা
রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:৪৯ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
বিডি ক্লিন নকলা টিমের বর্ষপূর্তিতে সম্মাননা স্মারক প্রদান ধর্ষণের প্রতিবাদে উত্তাল এমসি কলেজ মদনে অনশন করা সেই প্রেমিকার ডাক্তারি পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামত জগন্নাথপুরে মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে নৌকার প্রচার মিছিল ও পথসভা কলমাকান্দায় টানা বর্ষণে তলিয়ে গেছে আমন ধান শ্রীপুর পৌরসভাকে আধুনিকায়ন করতে চাই -এড, হারুন অর রশিদ ফরিদ বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশনে কলেজ ছাত্রী জৈন্তা জামেয়া ইসলামিয়া মহিলা মাদ্রাসার আহবায়ক কমিটির গঠন জেগেছে তারুণ্য তুলছে ময়লা, ঈশ্বরগঞ্জ বিডি ক্লিনের ১২ তম ইভেন্ট সম্পন্ন দুর্গাপুরে সোমেশ্বরী ও নেতাই নদীর তীব্র ভাঙনে, আতঙ্কে ১৫ গ্রামের বসতি




ব্রাহ্মণবাড়িয়া উপজেলার পিআইও’র অফিস সহকারীর হাতে আলাদিনের চেরাগ

  • মঙ্গলবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১:৩৫ অপরাহ্ণ
  • ৪৭২ বার পঠিত
ব্রাহ্মণবাড়িয়া উপজেলার পিআইও’র অফিস সহকারীর হাতে আলাদিনের চেরাগ!

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি;
নূর মোহাম্মদ সেলিম। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার অফিসের কম্পিউটার অপারেটর কাম অফিস সহকারী। আর মাত্র কয়েক মাস পর যাবে অবসরে। কিন্তু চাকরি জীবনের ৩৬ বছরের মধ্যে ৩০ বছর কাটিয়েছেন নিজ জেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়াতেই। আর হয়েছেন বিপুল অর্থবিত্তের মালিক।



সরেজমিনে অনুসন্ধানে জানা যায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর উপজেলার মাছিহাতা ইউনিয়নের কাছাইট গ্রামের ছাদেকুর রহমানের ছেলে নূর মোহাম্মদ সেলিম। পিতা ছাদেকুর রহমান ছিলেন স্থানীয় বাজারের ছোট মুদিমালের ব্যবসায়ী। সেলিম ত্রাণ পুর্ণবাসন অধিদপ্তরে চাকরিতে ঢুকেন ১৯৮৪ সালের। প্রথম যোগদান করেন সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায়। সেখান থেকে ১৯৮৭ সালে খাগড়াছড়ি জেলার রোয়াংছড়ি উপজেলায় আসেন। ১৯৮৯ সালে খাগড়াছড়ি জেলা থেকে বদলী হয়ে আসেন নিকটবর্তী জেলা কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে। ১৯৯২ সাল থেকে শুরু হয় নূর মোহাম্মদ সেলিমের সোনালী যুগ। ১৯৯২ সাল থেকে অদ্যাবধি নিজ জেলার বিভিন্ন উপজেলায় তিনি কাজ করেছেন। সদর উপজেলায় তিনি ২০০৫ সাল থেকে ১৫বছর যাবত কর্মরত আছেন। এরই মাঝে সেলিম হাতে পেয়ে যান আলাদিনের চেরাগ। জেলার কান্দিপাড়ায় শহরের প্রধান সড়কের পাশে নির্মাণ করেছে ৫তলা আলিশান বাড়ি। অল্প জায়গায় এই বাড়ি নির্মাণ করেছে প্রায় কোটি টাকা ব্যয় করে। ব্যাংকে নিজের ও স্ত্রীর নামে রয়েছে অঢেল অর্থ। কিন্তু অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটরের পদে থেকে কিভাবে এত বিপুল অর্থ ব্যয় করে বাড়ি নির্মাণ করেছেন, তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়ে।



স্থানীয়রা জানায়, ১৫/২০বছর আগেও সেলিমের অর্থনৈতিক অবস্থা তেমন সচ্ছল ছিল না। মাঝে শুনেছি ধান-চাল বিক্রি করে তার ভাগ্যের পরিবর্তন হয়েছে। এসব ধান-চাল সরকারি নাকি তার ব্যক্তি মালিকানাধীন, তা আমরা জানি না। তিনি ফকিরি করেন। নিজেকে আবার পীর হিসেবে দাবি করেন। তার ভক্তরা তাকে হাদিয়া দেন বলে শুনা যায়৷ উনি হঠাৎ পীর কিভাবে হলেন, তাও বুঝতে পারছিনা।

বিষয়ে জানতে নূর মোহাম্মদ সেলিমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমরা ৭ভাই দুই বোন ছিলাম। চলেছি অনেক কষ্ট করে। চাকরি হওয়ার পর আমার স্ত্রী যখন আমাকে সালাম করতে, তখন ৫০০/২০০ টাকা দিলে তা জামাতেন। শ্বাশুড়িও মাঝে মাঝে দিতেন। স্ত্রীর এই জমানো টাকা দিয়ে ১৯৯৫সালে শহরে দুই শতক জায়গা ক্রয় করা হয়। তিনি বলেন, গত প্রায় একবছর আগে এই জায়গায় ৬তলা ভিত্তিতে ৫তলা বাড়ি ৫০লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয়েছে। এই টাকা ব্যাংক লোন ও আত্মীয়স্বজনদের কাছ থেকে হাওলাত করা হয়।



এই বিষয়ে মাছিহাতা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আল আমিনুল পাভেল বলেন, নূর মোহাম্মদ সেলিমের পিতার স্থানীয় বাজারে ভাতের হোটেল ছিল, পরে মুদিমালের ব্যবসা শুরু করেন বলে খোঁজ নিয়ে জানতে পেরেছি। তিনি ফকিরী লাইনের তাই বিভিন্ন মাজারে যান। এলাকায় মাঝে মাঝে আসেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার প্রকল্প বাস্তবাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রকৌশলী মিজানুর রহমান মুঠোফোনে বলেন, বাড়িঘর নির্মাণ করা এটা তার ব্যক্তিগত বিষয়। তবে এই বেতন দিয়ে তিনি ৫তলা বাড়ি নির্মাণ করা সম্ভব নয় বলে তিনি মন্তব্য করেন।

আরো পড়ুন>>> ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নিখোঁজের ১৪ দিনেও সন্ধান মেলেনি মুফতি মিজানুর রহমানের

আপনার মতামত লিখুনঃ
নিউজটি সেয়ার করার জন্য অনুরোধ রইল!
এই জাতীয় আরো সংবাদ




আমাদের ফেসবুক পেজ




durjoybangla.conlm_৮ বছরে




add_durjoybangla.com_দুর্জয় বাংলা

ঘরে বসে বিজ্ঞাপন দিন

add_durjoybangla.com
©২০১৩-২০২০ সর্বস্তত্ব সংরক্ষিত | দুর্জয় বাংলা
কারিগরি সহযোগিতায়  দুর্জয় বাংলা