13.7 C
New York
Saturday, July 31, 2021

ভেংগে গেল. চট্টগ্রাম মাঝিরঘাটের সার সিন্ডিকেট

জাহাঙ্গীর আলম নির্বাহী সম্পাদক

বিজ্ঞাপন

সরকার ভূর্তুকী দিয়ে গরীব কৃষক দের যে সার দিচ্ছে সেই সার কৃষক দের হাতে যাওয়ার আগে দাম হয়ে যাচ্ছে আকাশছোঁয়া। এই ভাবে দীর্ঘদিন যাবৎ চট্টগ্রামের মাঝিরঘাটে “চট্টগ্রাম সার ঠিকাদার পরিবহন কল্যাণ সমিতির”(সার সিন্ডিকেট) নাম দিয়ে বছর এর পর বছর গরীব কৃষক দের কোটি কোটি টাকা আত্নসাৎ করার অভিযোগ উঠেছে।

বিজ্ঞাপন

যেখানে সরকার গরীব কৃষক দের জন্য ভূর্তুকী দিয়ে টি এসপি সারের দাম নির্ধারিত করে দিয়েছে ১ হাজার টাকা,সেটি মাঝিরঘাটে সার সিন্ডিকেট এর মাধ্যমে বিক্রি হয় ১৫০০ থেকে ১৭০০ টাকায়।ডি এপি সার সরকারী দাম৭০০ টাকা সেটি বিক্রি হয় ১২৮০ টাকায়।

এই সিন্ডিকেট এর প্রধান হোতা বলা হয়,বাংলাদেশ ফাটিলেজার এসোসিয়েশনের চট্টগ্রাম জোনের সাধারন সম্পাদক ইউসুফ খান মাহবুব,চট্টগ্রাম সার পরিবহন কল্যাণ সমিতির সভাপতি আকরাম হায়দার।

বিজ্ঞাপন

কৃষি মন্ত্রণালয় থেকে এই সার কালোবাজারি ঠেকাতে সিদ্ধান্ত নেয় আগামী জুলাই/২১ থেকে বিসিআইসি কতৃর্ক উৎপাদিত টি এসপি ও ডি এপি সার কারখানা থেকে পরিবহন করে বাফার/কারখানা গুদাম হতে সরবারহের জন্য পরিবহন ঠিকাদার নিয়োগের নির্দেশনা দেয়।

সেখানে অভিযোগ রয়েছে,এই কালোবাজারি চক্র গরীব কৃষকদের থেকে আত্মসাৎ করা টাকা গুলো দিয়ে এখন নতুন করে সরকারী উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের মাধ্যমে তদবীর করার জন্য অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সচেতন মহলের দাবী, অবিলম্বে এই সিন্ডিকেট এর সাথে জড়িত ব্যক্তিদের  বিরুদ্ধে সরকার এবং প্রশাসন অতি দ্রুত ব্যবস্থা না নিলে কৃষক দের অসহায়ত্ব শেষ হবে না।এবং সরকার কৃষকদের যে সহায়তা দিচ্ছে তা কখন ও কৃষকরা সঠিকভাবে পাবে না।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

x