13.7 C
New York
মঙ্গলবার, মার্চ ২, ২০২১

মদনের নিষিদ্ধ গাইড বইয়ের রমরমা ব্যবসা

মোঃ সাকের খান, মদন প্রতিনিধি:

বিজ্ঞাপন

মদনে নিষিদ্ধ নোট ও গাইড বইয়ের রমরমা ব্যবসা চলছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরকারি নিষেধাজ্ঞা সত্তে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কিছু অসাধু শিক্ষকের নির্দেশে শিক্ষার্থীরা এসব বই কিনতে বাধ্য হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, সব ধরনের নোট বই মুদ্রণ, বাঁধাই, আমদানি, বিতরণ ও বিক্রি নিষিদ্ধ এবং আইন অমান্যকারীদের সাত বছরের সশ্রম কারাদন্ড বা ২৫ হাজার টাকা জরিমানার বিধান থাকলেও তা মানা হচ্ছে না। অভিযোগে জানা গেছে , প্রশাসনের নাকের ডগায় ও উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গড়ে ওঠা কিছু বইয়ের দোকানে নিষিদ্ধ নোট ও গাইড বইয়ে সয়লাব হয়ে গেছে। এসব দোকানে বিভিন্ন প্রকাশনীর গাইড বিক্রি হচ্ছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক অভিভাবক বলেন, ‘সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছেলের জন্য স্কুলের স্যারের কথা মতো গাইড বই কিনতে হয়েছে। দাম নিয়েছে ৬শত টাকা। সৃজনশীল ও অনুশীলনমূলক বইয়ের নামে নিষিদ্ধ নোট ও গাইড বই কিনতে অভিভাবকদের বাধ্য করে মুনাফা লুটছে একটি অসাধু চক্র। কয়েকজন বইয়ের দোকানী বলেন, শিক্ষকরা বাধ্য করছে বলেই আমরা বিক্রি করছি। তবে অভিযোগ অস্বীকার করছে শিক্ষকরা। তারা বলছে কোন শিক্ষার্থীদের বাধ্য করে দেওয়া হয়নি। অভিযোগ রয়েছে, কয়েকটি কোম্পানীর লোকজন স্কুল চলাকালীন সময়ে স্কুলে গিয়ে পড়ালেখার বিঘ্ন ঘটাচ্ছে। গাইডগুলোর মধ্য রয়েছে, জননী প্রকাশনা, লেকচার প্রকাশনা, পাঞ্জেরী , অনুপম প্রকাশনা সহ অন্যান্য কোম্পানি রয়েছে। তবে জননী সকলকে বাধ্যতামূলক করে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

বিজ্ঞাপন

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বেলায়েত হোসেন বলেন, বাজারে সব ধরনের নোট বা গাইড বই নিষিদ্ধ। তাই যে কোনো নামেই হোক এ ধরনের গাইড ব্যবসা বন্ধ করতে হবে। কোনো স্কুল কর্তৃপক্ষ বা শিক্ষক গাইড ব্যবসার সঙ্গে জড়িত থাকার প্রমাণ পেলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবুল হোসেন বলেন, আমরা নোট বা গাইড বই নিষিদ্ধ করে দিয়েছি। কোথাও যদি পাওয়া যায় তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে

বিজ্ঞাপন

উপজেলা নির্বাহী অফিসার বুলবুল আহমেদ বলেন, বাজারে সব ধরনের গাইড বই বিক্রি নিষিদ্ধ যদি কেউ আইন অমান্য করে বিক্রি করে তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হবে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল গফুর জানান বাজারে অবাধে গাইড বই বিক্রি হচ্ছে যা আইনত নিষিদ্ধ। অভিভাবকের কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরো পড়ুন: গাজীপুরে এশিয়ান টেলিভিশন বর্ষপূর্তি উদযাপন

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ সংবাদ

x