ময়মনসিংহে ওসি’র নেতৃত্বে মাদক ব্যবসায়ী রতনকে গ্রেফতার করেছে ১নং ফাঁড়ি পুলিশ

স্টাফ রিপোর্টার:

0
1

ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি শাহ কামাল আকন্দের নেতৃত্বে পুলিশের অভিযানে কোতোয়ালী মডেল থানা এলাকাকে অপরাধ মুক্ত করতে দিনরাত শ্রম দিচ্ছেন পুলিশ। সেই ধারাবাহিকতায় ওসি শাহ কামাল আকন্দের দিকনির্দেশনায় ১নং ফাঁড়ি পুলিশের মাদকবিরোধী অভিযানে ১৪ কেজী গাঁজা ও ২০ গ্রাম হেরোইনসহ একজন কুখ্যাত গাঁজা ব্যাবসায়ী গ্রেফতার। গ্রেফতারকৃত আসামী নাম রতন মিয়া(৬৫)।

মঙ্গলবার ভোর রাতে নগরীর মালগুদাম এলাকায় এই অভিযান পরিচালনা করেন ১নং ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ মাহবুব রহমান সঙ্গীয় ফোর্স ।

সুত্র জানিয়েছে , ময়মনসিংহ জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার আহমার উজ্জামান নগর থেকে মাদক মুক্ত করার লক্ষে কোতোয়ালী পুলিশকে নির্দেশনা প্রদান করেন। এরই ধারাবাহিকতায় ওসি কোতোয়ালী শাহ্ কামাল আকন্দের সার্বিক দিক নির্দেশনায় ১নং ফাড়ি এলাকার ইনচার্জ মাহবুব রহমান ১৯শে অক্টোবর মঙ্গলবার এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে কুখ্যাত গাঁজা ব্যাবসায়ী রতনকে আটক করে। রতনকে আটক করার পর এলাকার গণমানুষের মাঝে স্বস্তি নেমে এসেছে। মাদক বিরোধী এই অভিযানে মাদক ব্যবসায়ী রতন গ্রেফতার হওয়ায় এলাকাবাসী জেলা পুলিশকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছে।

এর আগে মাদক ব্যবসায়ী রতনকে বার বার গ্রেফতারে অভিযান পরিচালনা করলেও কোন সংস্থা তাকে পাচ্ছিলনা। বিশেষ করে মাদক নিয়ন্ত্রক অধিদপ্তরের অভিযান ছিল প্রশ্নবিদ্ধ? কোন এক নামধারী সাংবাদিক বিভিন্ন প্রশাসনকে ম্যানেজ করতো ও রতনের জন্য তদবির করতো বলেও একাধিক সুত্র নিশ্চিত করে। গ্রেফতার হওয়ার পর ফাঁড়ি এলাকায় তার বিচরণ ছিল।

কোতোয়ালী থানার ওসি শাহ্ কামাল আকন্দ বলেন, রতন দীর্ঘদিন যাবত মাদক ও হেরোইন ব্যাবসা পরিচালনা করে আসছিল। গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা রজু পূর্বক আসামীকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হবে

তিনি জানান- মাদকমুক্ত আধুনিক সমাজ গঠনে মাদকের বিরুদ্ধে নিয়মিত এমন অভিযান পরিচালনা করা হবে। অভিযানকে সফল করতে মাদক ব্যবসায়ীদের ব্যাপারে তথ্য দিয়ে সহযোগীতা করতে কোতোয়ালি মডেল থানা এলাকার সর্বস্তরের জনতাকে আহ্বান করেন ।

উল্লেখ্য যে মাদক ব্যবসায়ী রতনসহ তার স্ত্রী আলেয়া বেগম, মেয়ে পলি, ছেলে আল আমিন, শরিফ, শফিকুল প্রত্যেকটি সদস্য মাদক ব্যবসায় জড়িত।