13.7 C
New York
সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১

ময়মনসিংহে চরপাড়া এলাকায় মাদক অভয়ারণ্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হস্তক্ষেপ কামনা

স্টাফ রিপোর্টার :

বিজ্ঞাপন

ময়মনসিংহ মহানগরের ১৪ নং ওয়ার্ডের চরপাড়া বাইলেন এলাকায় বিলকিস ছাত্রাবাস গলিতে দীর্ঘদিন যাবত একটি সংঘবদ্ধ মাদক কারবারি দল প্রকাশ্যে মাদক বিক্রি ও মাদক সেবন করছে।

বিজ্ঞাপন

এ এলাকায় মাদক অভয়ারণ্য বলে নিরীহ এলাকাবাসী মাদক কারবারিদের কাছে জিম্মি হয়ে গেছে।

বিপদগামী হচ্ছে উঠতি বয়সের যুব সমাজ। বাসা বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে এমনকি গেইটে বসে মাদক বিক্রি ও সেবন করছে। প্রতিবাদ বা বাঁধা দিলে সংঘবদ্ধ মাদক কারবারি দল তেড়ে এসে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে নাজেহাল করছে। ভয়ে কেউ টু- শব্দটিও করছেনা।

বিজ্ঞাপন

ভুক্তভোগী নিরীহ মানুষ ময়মনসিংহ পুলিশ সুপারের সুদৃষ্টি আকর্ষণ করে এর থেকে পরিত্রাণের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

বিভিন্ন এলাকা থেকে বিপুল সংখ্যক মাদক কারবারি ও মাদক সেবীরা এদের কাছ কাছ থেকে মাদক নিয়ে যাচ্ছে। ঝোপঝাড় ও নানান গোপন স্থানে মাদক রেখে দেয়। খদ্দেরগন সিগনাল বুঝে ওই স্থান থেকে মাদক নিয়ে চলে যায়।

বিজ্ঞাপন

জানাগেছে মাদক কারবারিরা তাদের নিরাপত্তার জন্য ৮/১০ টি কুকুরকে তাদের সাথী করে নিয়েছে। কুকুর গুলো মাদক কারবারিদের পোষ্য। অচেনা কেউ আসলেই এদের পোষ্য কুকুরগুলো ঘেউঘেউ করে তেড়ে আসে।

পুলিশ কিংবা আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর লোকজন আসলে কুকুর গুলো ঘেউঘেউ করতে থাকে, আর সুযোগ বুঝে মাদকাসক্ত ও মাদক কারবারিরা গা ঢাকা দেয়। পুলিশ চলে গেলেই আবারও বেড়িয়ে আসে আর চালায় তাদের মাদক কারবার ও সেবন কাজ।

ভুক্তভোগী ও এলাকায় বসবাসকারী সমাজসেবা অধিদপ্তরের সাবেক উপ পরিচালক এস কে এম আনোয়ারুল হক, এডভোকেট এম এ হামিদ, জেলা প্রশাসকের সাবেক প্রশাসনিক কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম, অধ্যক্ষ মোহাম্মদ শোআইব, শফিউল আলম লিটন, জনতা ব্যাংকের সাবেক এসপিও মোঃ সিরাজুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ইসমাইল সিরাজী,অবসরপ্রাপ্ত এস আই সাইফুল ফরাজী,সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসার মোঃ আজিজুল হক, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আব্দুল হাই,অবসরপ্রাপ্ত সেনাবাহিনীর সদস্য মোঃ লিয়াকত আলী, অবসরপ্রাপ্ত প্রকৌশলী এস এম গোলাম মোস্তফা, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মোঃ সেকান্দর আলী, ইন্জিনিয়ার সাইফুল ইসলাম বিপ্লব,শরীর চর্চা শিক্ষক মোঃ সাখাওয়াত হোসেন ভূঁইয়া, জুয়েলারী ব্যবসায়ী পলাশ চন্দ্র তালুকদার, রুপন কুমার শর্মা সরকার অজয় ও অবসরপ্রাপ্ত নৌ বাহিনীর সদস্য মমতাজ উদ্দিনসহ আরো অনেক ভুক্তভোগীকে জিজ্ঞেস করলেই এর সত্যতার প্রমাণ পাওয়া যাবে।

চরপাড়া বাইলেনের ওই এলাকাটি এখন মাদক কারবারি ও অপরাধীদের অভয়ারণ্যে পরিণত হয়েছে। অনেকেই এই এলাকা নিয়ে অনেক বার নিউজ করেছেন কিন্তু পুলিশ প্রশাসনের কোনতেই টনক নড়ছে না বা কোন সুফল হচ্ছে না, এমতবস্থায় এলাকাবাসী পুলিশ সুপারের মাধ্যমে প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

আরও পড়ুনঃ আটপাড়ায় মিথ্যা মামলা থেকে অব্যহতি দিতে অসুস্থ আ.লীগ কর্মীর আহাজারি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

বিজ্ঞাপন
x