রাজশাহীতে বছরের প্রথম দিনেই নতুন বই পেলো শিক্ষার্থীরা

নাজিম হাসান,রাজশাহী প্রতিনিধি:
নতুন বইয়ের মৌ মৌ গন্ধে মাতায়ারা স্কুল প্রাঙ্গন। সারি ভাবে দাঁড়িয়ে বই নেয়ার অনন্দটাই আলাদা। তারপরেও আবার সববই নতুন। পাতায় পাতায় ঝকঝকে ছবি। বই জুড়ে গল্প আর ছড়ার মেলা। এবছর নতুন বইয়ে গন্ধে মাতোয়ারা হলো রাজশাহীর শিক্ষার্থীরা। এ বছরের প্রথম দিনে নতুন বই পেলো রাজশাহীর প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের প্রায় ৫ লাখ শিক্ষার্থী ৫০ লাখ নতুন বই। গতকাল বুধবার সকালে মহানগরীর অগ্রণী বিদ্যালয় ও মহাবিদ্যালয়ে প্রধান অতিথি হিসেবে বই উৎসবের উদ্বোধন করেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।



সেখানে আনুষ্ঠানিকভাবে বেলুন উড়িয়ে বিনামুল্যে বই বিতরণ উৎসব উদ্বোধন করা হয়। এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন, প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের বিভাগীয় উপপরিচালক আবুল কালাম আজাদ, জেলা প্রশাসক হামিদুল হক, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের বিভাগীয় উপপরিচালক শারমিন ফেরদৌস চৌধুরী ও স্কুল পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মোশাররফ হোসেন বাচ্চ প্রমুখু। এরপর মহানগরীর মিশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে বই বিতরণের উদ্বোধন করেন শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা।



তিনি শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেন। অন্যদিকে, মহানগরীর বিভিন্ন স্কুলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন পাঠ্যবই তুলে দেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও বিশিষ্ট সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনী। এসময় তিনি বলেন, বর্তমান সরকার শিক্ষার প্রসারে গুরুত্ব দিয়েছে। শিক্ষার্থীদের উৎসাহিত করতে বছরের শুরুতেই তাদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়ার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।এসময় জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন জানান, চাহিদা অনুযায়ী প্রত্যেক স্কুলে গত ১০ ডিসেম্বরের মধ্যে নতুন বইয়ের সেট পাঠিয়ে দেওয়া হয়। বুধবার সকাল থেকে বই বিতরণ শুরু করা হয়।



এবার রাজশাহীতে ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত মাধ্যমিক স্তরে ১ লাখ ৮৩ হাজার ৩৮৩ শিক্ষার্থী রয়েছে। তাদের মধ্যে ৪৫ লাখ ৮৪ হাজার নতুন বই বিতরণ করা হচ্ছে। এর মধ্যে রাজশাহীতে সরকারি স্কুল ৬টি, বেসরকারি স্কুল ৫৮৪টি ও মাদ্রাসা রয়েছে ২০৩টি। এছাড়া ৩টি ইংরেজিমাধ্যম স্কুল রয়েছে। অপরদিকে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবদুস সালাম জানান, রাজশাহী জেলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা ১ হাজার ৪৯৬টি। শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৩ লাখ ১১১ জন। তাদের মাঝে ১৪ লাখ ১১ হাজার ২৯৫টি নতুন বই বিতরণ করা হচ্ছে। এছাড়া প্রাক-প্রাথমিক পর্যায়ে একই সংখক শিক্ষার্থীর মাঝে ৪৭ হাজার ৩০টি নতুন বই বিতরণ হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here