13.7 C
New York
মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২১

রাজারহাটে বাংলার টাইগারের দাম উঠেছে ৪ লাখ

এ.এস.লিমন,রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি:

বিজ্ঞাপন

কুড়িগ্রামে রাজারহাট উপজেলার ঘড়িয়ালডাঙ্গা ইউনিয়নের সুলতানবাহাদুর এলাকার রাজিকুল ইসলামের খামারে রয়েছে একটি ষাঁড়। নাম তার রাখা হয়েছে বাংলার টাইগার। স্বভাব শান্ত হলেও দেহটা বাঘের মতোই! ওজন প্রায় ৯০০-১০০০ কেজি হবে।

বিজ্ঞাপন

এ পর্যন্ত দাম হাকিচ্ছেন চার লাখ টাকা। তবে মালিকের দাম সাড়ে চার লাখ টাকা। ঈদকে সামনে রেখে ব্রিক্রি করা জন্য প্রস্তুত বাংলার টাইগারের মালিক। কোনো একটা হাটে বাংলার টাইগারকে নেয়া হবে। ওই বাংলার টাইগার হলো ফ্রিজিয়াম জাতের ষাঁড়। বয়স প্রায় চার বছর। কোরবাবানির উপযোগী হওয়ার ষাঁড়ের মালিক বিক্রির করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এতে এলাকায় বেশ সাড়া পড়ে গেছে। প্রতিদিন দূর- দূরন্ত থেকে রাজিকুলের বাড়িতে এসেই দাম হাঁকাচ্ছেন ক্রেতারা। অনেকেই বাংলার টাইগারকে একনজর দেখতে ভিড় করছেন।

ষাঁড়টিকে দেখতে আসা আলতাফ হোসেন বলেন, এত বড় গরু সাধারণত হাটে দেখতে পাওয়া যায় না। তাই ‘বাংলার টাইগারের’ খবর শুনে তিনি দেখতে এসেছেন। খামার মালিক রাজিকুল ইসলাম বলেন, কোনো প্রকার ক্ষতিকর ট্যাবলেট ও ইনজেকশন ছাড়াই সম্পূর্ণ দেশীয় পদ্ধতিতে প্রাকৃতিক খাদ্যে ষাঁড়টিকে এ পর্যায়ে আনা হয়েছে। ষাঁড়টিকে খড়, জার্মানির তাজা ঘাস, খৈল ভূষি, চালের কুড়া, ভুট্টা,ভাতসহ পুষ্টিকর খাবার খাওয়ানো হয়। এছাড়াও নিয়মিত খাবার, গোসল করানো পরিষ্কার ঘরে রাখা, তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখা ও রুটিন অনুযায়ী ভ্যাকসিন দেয়াসহ চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া হচ্ছে। খাবারসহ প্রতিদিন এ ষাঁড়টির পেছনে ৪০০ টাকার ওপর খরচ হয়।

বিজ্ঞাপন

এ বিষয়ে রাজারহাট উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ড: মো: জোবায়দুল কবীর বলেন, দীর্ঘদিন ধরে উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের তত্ত¡াবধানে সম্পন্ন স্বাস্থ্যসম্মত ও নিরাপদের জন্য বিভিন্ন নির্দেশনা ও পরামর্শ দেওয়া হয়েছে বাংলার টাইগারের মালিক রাজিকুল ইসলামকে।

আরও পড়ুন: লকডাউনের দ্বিতীয় দিনেও বেড়া ও সাঁথিয়া থানা পুলিশ কঠোর অবস্থানে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

বিজ্ঞাপন
x