13.7 C
New York
রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২১

শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টার খবর উদ্দেশ্য প্রণোদিত: প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়

বিজ্ঞাপন

শিবলী সাদিক খান,দুর্জয় বাংলা ।। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার ষড়যন্ত্রের যে খবর বিদেশি সংবাদ মাধ্যমে এসেছে, তা ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছে খোদ তার দপ্তর। বিদেশি সংবাদ মাধ্যমকে উদ্ধৃত করে বাংলাদেশের গণমাধ্যমে খবরটি প্রকাশের পর রোববার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপর গত ২৪ অাগস্ট তারিখে হামলার খবরটি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, বিভ্রান্তিমূলক এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।
প্রধানমন্ত্রীর উপ প্রেসসচিব আশরাফুল আলম খোকন এই বিজ্ঞপ্তিতে গণমাধ্যমে পাঠিয়েছেন।
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭ তারিখে একটি বিদেশী টিভি চ্যানেল ও একটি আন্তর্জাতিক অনলাইন পত্রিকার সূত্র ব্যবহার করে বাংলাদেশের কয়েকটি সংবাদ মাধ্যম গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপর বিগত ২৪ আগস্ট ২০১৭ তারিখে প্রাণনাশী হামলার ব্যর্থ প্রচেষ্টার খবর প্রকাশ করে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপর তথাকথিত ব্যর্থ হামলার সাথে একটি বিশেষ বাহিনীর কতিপয় সদস্যকে সংশ্লিষ্ট করে বাংলাদেশের কয়েকটি টিভি চ্যানেলে খবর প্রচারসহ আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, সকলের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপর ২৪ আগস্ট ২০১৭ তারিখে হামলার খবরটি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, বিভ্রান্তিমূলক এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। দেশের নিরাপত্তার সার্বিক স্বার্থ পরিপন্থী এরূপ বিভ্রান্তিমূলক সংবাদ প্রচার করা যেকোন দায়িত্বশীল ব্যক্তি ও সচেতন গণমাধ্যম এর পক্ষে মোটেও কাম্য নয়।
বিজ্ঞপ্তিতে এরূপ ভিত্তিহীন এবং বিভ্রান্তিমূলক সংবাদ প্রকাশের পূর্বে সংশ্লিষ্ট সকলকে সতর্কতা অবলম্বন এবং বিচার বিবেচনা প্রসূত মিডিয়া কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হয়।
তার আগে সচিবালয়ে আইন শৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভাপতি আমির হোসেন আমুও সাংবাদিকদের বলেছিলেন, এই খবরের সত্যতা পাননি তারা।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছেন। জাতিসংঘে সাধারণ অধিবেশনে গত বৃহস্পতিবার ভাষণ দেন তিনি।
শনিবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ১৮-তে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, আগস্টের ২৪ তারিখে শেখ হাসিনার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের (এসএসএফ) কয়েকজন সদস্য দিয়ে তাঁকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয়েছিল। এর সঙ্গে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামা’আতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশও (জেএমবি) জড়িত। কিন্তু শেখ হাসিনার কাছের কয়েকজন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের কয়েকজন কর্মকর্তার প্রচেষ্টায় সে পরিকল্পনা ব্যর্থ হয়।
২৪ আগস্ট শেখ হাসিনা তার কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে সিলেটে জঙ্গিবিরোধী অভিযানে নিহত কর্মকর্তাদের স্বজদের হাতে আর্থিক অনুদানের চেক তুলে দেন। কার্যালয়ে বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মকর্তাদের সঙ্গে একটি অনুষ্ঠানেও ছিলেন তিনি।
একই দিন তিনি গুলশানে রাষ্ট্রপতি প্রয়াত জিল্লুর রহমানের বাড়িতে গ্রেনেড হামলায় নিহত আইভি রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীর মিলাদে যোগ দিয়েছিলেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

বিজ্ঞাপন
x