13.7 C
New York
Saturday, July 31, 2021

শ্রীপুরে এএসএম কেমিক্যাল কারখানায় ভয়াবহ আগুন,তদন্ত কমিটি গঠন

বিজ্ঞাপন

গাজীপুরের শ্রীপুরে টেপিরবাড়ি গ্রামে এএসএম কেমিক্যাল কারখানায় আগুনের ঘটনায় একজনের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে বলে জানা যায়। আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে আরও ১৪ জন। এ ঘটনায় পাঁচ সদস্য তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন জেলা প্রশাসন।

বিজ্ঞাপন

১১ ফেব্রয়ারী রোজ বৃহস্পতিবার বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। ফায়ার সার্ভিসের ৮টি ইউনিটের চেষ্টায় রাত সোয়া ৯টার দিকে আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসে।

নিহত ব্যক্তির নাম আলমগীর হোসেন (৩৫),তিনি শ্রীপুরের উজিলাব গ্রামের তাইজ উদ্দিনের ছেলে বলে দাবী করেছেন একটি পরিবার। আলমগীর ওই কারখানায় মেশিনের হেলপার হিসেবে কাজ করতেন বলেও জানান পরিবার। পুলিশ বলেছেন, ডিএনএ রিপোর্ট আসার পর তার পরিচয় নিশ্চিত করে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

বিজ্ঞাপন

কারখানায় কর্মরত কয়েকজন কর্মচারী জানান, আজ উৎপাদন চলাকালে বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে কেমিক্যাল প্ল্যান্টের বয়লার কক্ষে বিস্ফোরণ হয়। মুহূর্তেই আগুন প্ল্যান্টজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে। কারখানার ভেতর দাহ্য রাসায়নিক পদার্থের অনেক ড্রাম ছিলো বলে জানান।

কারখানার মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) আসিফুর রহমান জানান, আগুনে প্রায় পৌঁনে এক কোটি টাকার ক্ষতিসাধন হয়েছে।এর চেয়ে বেশী কিছুই বলতে রাজি হননি তিনি।

বিজ্ঞাপন

শ্রীপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন অফিসার মিয়া রাজ জানান, বিকেলে আগুন লাগার সংবাদে প্রথমে শ্রীপুর ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট কাজ শুরু করে। পরে আগুণের ভয়াবহতা বেশি হওয়ায় জয়দেবপুর,টঙ্গী ও পার্শ্ববর্তী ময়মনসিংহের ভালুকাসহ মোট ৮টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে কাজ শুরু করে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার পর ভেতরে ঢুকে রাত পৌনে দশটার দিকে সেখান থেকে একটি মরদেহ উদ্ধার করেছেন তাঁরা। পুড়ে বিকৃত হয়ে যাওয়ায় মরদেহটি তাৎক্ষণিক শনাক্ত করা যায়নি। এ সময় ভেতরে আর কোনো মরদেহ নেই বলেও জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় আহত কয়েকজনকে স্থানীয় হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। এছাড়াও গুরুতর আহতদের ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, এ ঘটনায় রাতে একজনের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। ডিএনএ রিপোর্ট অনুযায়ী তার পরিচয় সনাক্তকরণে পর পরিবারের কাছে তার লাশ হস্তান্তর করা হবে। এছাড়াও ১৪ জন আহত হওয়ার তথ্য পেয়েছি ।

তিনি আরও বলেন, অগ্নিকান্ডের ঘটনায় পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন জেলা প্রশাসন। কমিটিকে আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে কারখানার হাইড্রোজেন পার অক্সাইড মেশিনে বিস্ফোরণের ঘটনায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। মুহুর্তেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে পুরো মেশিন জুড়ে। আগুনের বিভীষিকায় আশপাশে থাকা প্রায় ৫০/৬০ টি পরিবার আতংকে বাড়িঘর ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নেন। এলাকার মানুষের মধ্যে আগুন আতংক বিরাজ করে।

আরও পড়ুনঃ ময়মনসিংহে ডিবির অভিযানে ১৩ জুয়াড়ি ও মাদক ব্যবসায়ীসহ গ্রেফতার ১৭

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

x