13.7 C
New York
মঙ্গলবার, আগস্ট ৩, ২০২১

স্কুলের জমি দাতা হলেও ছাড়েনি ভোগ দখল স্কুল মাঠে বীজতলা ও চাষাবাদ

দেওয়ানগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

বিজ্ঞাপন

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার ডাংধরা ইউনিয়নের দক্ষিণ মাখনের চর সরকারী প্রাঃ বিদ্যালয় মাঠে ফসল চাষ লক্ষ করা গেছে। স্কুল মাঠে শষ্য চাষ নাকি শষ্য ক্ষেতে শহীদ মিনার নির্মাণ দেখে চেনার উপায় নাই।

বিজ্ঞাপন

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, স্কুল মাঠের পূর্ব কোণে ধানের বীজ তলার মাঝে রয়েছে গত কিছু দিন আগে নব নির্মিত শহীদ মিনার।

এলাকাবাসীকে জিজ্ঞেস করলে তারা জানান, এটা স্কুল মাঠ জমি দাতা ফজল হক ধানের বীজতলা করেছে। এর সত্যতা মেলে জমি দাতা ফজল হকের পুত্র ও রাজিবপুর পাইলট স্কুলের শিক্ষক ও রফিকুল ইসলাম লিটন এর কাছে।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, বেশ কিছু দিন আগে এখানে শহীদ মিনার স্থাপন করা হয়েছে। করোনা কালীন সময়ে স্কুলের ছাত্র /ছাত্রী ও স্কুল খোলা না থাকায় ধানের বীজতলা করা হয়েছে।

তাছাড়া এই জমিটা আমাদের হলেও খাশ খতিয়ান ভুক্ত,তবুও এটা করা ঠিক হয়নি। উক্ত স্কুলের সভাপতি মোঃ শুক্কুর আলী বলেন, স্কুল মাঠে চাষ করা বা বীজ তলা করা অন্যায়, এটা করা কোন রকমেই সম্ভব নয়।

বিজ্ঞাপন

তবে এব্যাপারে আমি আগে কিছুই জানিনা, এইমাত্র দেখলাম । সভাপতি আরও বলেন এই জমিটা সরকারী খাশ খতিয়ানের জমি যার বিআরএস দাগ নং ২১৩৮।

কিন্তু দাতা যে জমি দান করেছেন তার বিআরএস দাগ নং১২০৪, খতিয়ান নং ৭৫৬২, যা দাতা আজও ভোগ দখলে রেখেছেন ও চাষাবাদ করে গোলা ভরছেন।

দক্ষিণ মাখনের চর সরকারী প্রাঃ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শামসুন্নাহার জানান, শারীরিক ভাবে অসুস্থ্যের কারণে কয়েকদিন যাবৎ স্কুলে যেতে পারিনি,

তাই স্কুল মাঠে বীজ তলা সম্পর্কে আমি কিছু জানি না, আমাকে কেউ জানায় নি, আমার কাছে কেউ অনুমতিও নেয়নি। তবে এমন হলে আমি উর্ধতন কর্মকর্তাকে জানাবো।

আরও পড়ুনঃ ঝিনাইগাতীতে লেবু হত্যা মামলার বাদীকে মামলা তুলে নিতে প্রাণ নাশের হুমকি।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

x