13.7 C
New York
শনিবার, মে ৮, ২০২১

হেফাজতের ভাংচুর মামলায় আওয়ামী লীগ নেতা আসামী!

স্টাফ রিপোর্টার :

বিজ্ঞাপন

হেফাজতের ভাংচুর মামলায় আওয়ামী লীগ নেতাকে আসামী করা হয়েছে। ঘটনার বিবরণে জানা যায় ২৮ মার্চ হেফাজত ইসলাম বাংলাদেশ কর্তৃক ঘোষিত সারাদেশে হরতাল চলমান থাকা অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মুক্তাগাছার সরকারি এ্যাম্বুলেন্স গাড়িতে জরুরী রোগী নিয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যাওয়ার পথে সকাল অনুমান ১০.৪০ ঘটিকার সময় সদর থানাধীন বেগুনবাড়ী মোড় সংলগ্ন হাইওয়ে রাস্তায় পৌছা মাত্রই শতাধিক হেফাজত নেতাকর্মীরা সরকারি এ্যম্বুলেন্স গাড়ীর গতিরোধ করে গ্লাসসহ গাড়িটি ভাংচুর করে।

বিজ্ঞাপন

এঘটনায় ময়মনসিংহ সদর কোতোয়ালী মডেল থানায় মামলা নং ১৩৩ তাং ৩১/৩/২১ ধারা-১৪৩/১৪৭/১৪৮১৪৯/৩৪১/৪২৭/৩৫৩ দ :বি : রুজু হয়। মামলার এজাহারে এ্যাম্বুলেন্সের ড্রাইভার মো:তুষার মিয়া (৩১) বাদী হয়ে মামলার এজাহারে ৯ (নয়) জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ১০০/১৫০ জন বলা হয়।

এ মামলার এজাহার নামীয় ২নং আসামি মো:উজ্জ্বল (২৯) পিতা-আহমদ আলী সাং-কুমারগাতা মুক্তাগাছা একজন হেফাজত নেতা ঘটনার নেতৃত্বদানকারী বলে স্হানীয় ভাবে ব্যপক জনশ্রুতি রয়েছে তাকে আটক করা হলেও প্রতিমন্ত্রীর ফোনে ছেড়ে দেয়া হয় বলে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনা হয় কিন্তু পুলিশের দায়িত্বশীল সূত্রে নির্ভরযোগ্য তথ্য পাওয়া যায়নি।

বিজ্ঞাপন

অপরদিকে একই মামলার এজাহারে ৯নং আসামি একজন সাবেক ছাত্রনেতা নাম মো:বোরহান উদ্দিন মুক্তাগাছা উপজেলা ছাত্রলীগের ১নং যুগ্ম আহবায়ক এর দায়িত্ব পালন করেন ২০০৬ সালে, অতপর ২০১৩ সালে মুক্তাগাছা ৫নং বাঁশাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির ৪নং সদস্য ছিলেন তাকে জড়িত করা হয়েছে অথচ তিনি ঘটনার তারিখ ও সময়ে ঘটনাস্হলে উপস্থিত ছিলেন না বলে একাধিক আওয়ামী লীগ নেতা এ প্রতিবেদকে নিশ্চিত করেছেন। মামলার বাদীকে মুঠো ফোনে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান আসামিদের তিনি চিনেন না কারো নাম তিনি দেন নাই। সচেতন মহলের প্রশ্ন এজাহারে এ নামগুলো কে বা কারা দিয়ে বাদীর স্বাক্ষর নেওয়া হয়েছে।

এ মামলার সুষ্ঠু নিরপেক্ষ তদন্ত করে ন্যায় বিচার প্রত্যাশা করছেন বোরহানের পরিবার।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুনঃ আজ,৩ মে বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ সংবাদ

x