বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০

দুর্জয় বাংলা || Durjoy Bangla

নেত্রকোনা জেলায় আমন আবাদের ধুম পড়েছে

প্রকাশিত: ০৮:৩৯, ৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

নেত্রকোনা জেলায় আমন আবাদের ধুম পড়েছে

নেত্রকোনা জেলায় আমন আবাদের ধুম পড়েছে

চলতি আমন মওসুমে নেত্রকোনা জেলায় আমন আবাদের ধুম পড়েছে। নেত্রকোনা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, চলতি আমন মওসুমে নেত্রকোনা জেলায় ১ লাখ ৩২ হাজার ৫ শত ৮০ হেক্টর জমিতে আমন আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। ধান উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৫ লাখ ৮৫ হাজার ৭ শত ৮৩ মে. টন। আর ধান থেকে চাল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৩ লাখ ৯০ হাজার ৫ শত ২২ মে. টন।

নেত্রকোনা জেলা মূলত ধান উদ্ধৃত্ত জেলা হিসেবে পরিচিত। কৃষকরা তাদের উৎপাদিত ধান নিজেদের চাহিদা মিটিয়ে অন্যান্য জেলায়ও রপ্তানী করে।
চলতি আমন মওসুমের প্রথম দিকে প্রয়োজনীয় বৃষ্টিপাত না হলেও পরবর্তীতে টানা বৃষ্টিপাত হওয়ায় একটু দেরীতে হলেও নেত্রকোনায় আমনের বীজতলা তৈরী,  জমি চাষাবাদ, চারা সংগ্রহ ও ধান রোপনে আদীবাসি নারীসহ স্থানীয় কৃষকরা ব্যস্ত সময় পার করছে। নেত্রকোনায় এখন রোপা আমন ধান আবাদের ধুম পড়েছে।

কাক ডাকা ভোর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত মাঠে মাঠে চলছে চাষাবাদ। নেত্রকোনার হাওর এলাকা হিসেবে পরিচিত খালিয়াজুরী, মদন, মোহনগঞ্জ এবং কলমাকান্দা উপজেলার কিছু অংশ বাদে ইতিমধ্যে জেলার নেত্রকোনা সদর, পূর্বধলা, কেন্দুয়া, বারহাট্টা, দূর্গাপুর, আটপাড়া উপজেলায় চলছে আমন আবাদের ধুম। এই রোপণ কাজ চলবে সেপ্টেম্বর মাসের ২য় সপ্তাহ পর্যন্ত।

নেত্রকোনা সদর উপজেলার কাইলাটী ইউনিয়নের অনন্তপুর গ্রামের কৃষক এনাম আহমেদ বলেন, পর্যাপ্ত বৃষ্টি হওয়ায় তিনি তার সমস্ত জমিতে আমন ধান আবাদ করেছেন।

আটপাড়া উপজেলার স্বরমুশিয়া ইউনিয়নের রূপচন্দ্রপুর গ্রামের কৃষক আকিকুর রেজা খোকন বলেন, প্রয়োজনীয় বৃষ্টিপাত হওয়ায় বিদ্যুৎ দিয়ে সেচ
মেশিন চালিয়ে জমিতে পানি দিতে হয়নি। এতে কৃষকরা আর্থিকভাবে লাভবান হয়েছেন।

কেন্দুয়া উপজেলার চিরাং ইউনিয়নের দুল্লী গ্রামের কৃষক রহমতউল্লাহ বলেন, এলাকায় কোন সার সংকট নেই। জমি নিড়ানির পর প্রয়োজনীয় সার দেয়ায় ধানের গোছা দ্রুত মোটা হয়ে তরতর করে বেড়ে উঠছে।

নেত্রকোনা কৃষি স¤প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মোহাম্মদ নুরুজ্জামান বলেন, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত নেত্রকোনায় লক্ষ্যমাত্রার ৯৭ ভাগ জমিতে আমন আবাদ করা হয়েছে। নেত্রকোনায় বন্যা না হওযায় আশা করছি, শেষ পর্যন্ত নেত্রকোনায় লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশী জমিতে আমন ধানের আবাদ করা হবে। জেলার কোথাও সারের কোন সংকট নেই। আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে এবং রোগ বালাই না হলে আমন ধানের বাম্পার ফলন হবে।

আরও পড়ুন: নেত্রকোনায় কারাবন্দি আলেমদের মুক্তির দাবিতে সমাবেশ


Notice: Undefined variable: sAddThis in /home/durjoyba/public_html/details.php on line 808