শনিবার ০২ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০

দুর্জয় বাংলা || Durjoy Bangla

মোহনগঞ্জের কংশ নদে ধান বোঝাই নৌকা ডুবি: এক শ্রমিক নিখোঁজ

মোহনগঞ্জের কংশ নদে ধান বোঝাই নৌকা ডুবি: এক শ্রমিক নিখোঁজ

মোহনগঞ্জের কংশ নদে ধান বোঝাই নৌকা ডুবি: এক শ্রমিক নিখোঁজ

নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জ পৌর এলাকার উত্তর দৌলতপুর বালু ঘাটে সোমবার রাতে কংস নদে ধানবোঝাই নৌকাডুবিতে রেজাউল ইসলাম ওরফে শিরমনি (৩০) নামের এক শ্রমিক নিখোঁজ হয়েছেন।

আজ মঙ্গলবার বিকাল ৪টা পর্যন্ত তাঁর খোঁজ মেলেনি। নিখোঁজ শিরমনি পার্শ্ববর্তী সুনামগঞ্জের জেলার দিরাই উপজেলার মাছিমপুর গ্রামের উসমান গণির ছেলে। নৌকার লোকজন জানায়, সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই থেকে স্টিল বডির নৌকাটি ২৫০ বস্তায় ৪৫৬ মণ ধান নিয়ে সোমবার সন্ধ্যায় মোহনগঞ্জ পৌর শহরের দৌলতপুর ঘাটে ভেড়ে।

নৌকা থেকে বেঁচে যাওয়া শ্রমিক ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নৌকায় মাঝিসহ তারা মোট পাঁচ জন ছিলেন। নৌকাটি ঘাটে বাঁধা ছিল। শ্রমিকরা সকলেই নৌকাতে ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত ৩টার দিকে বিকট শব্দে নৌকার তলা ফেটে গিয়ে দ্রæত তলিয়ে যায়। চারজন ঘুম থেকে উঠে দ্রæত নৌকা থেকে
বেরিয়ে সাঁতরে তীরে উঠলেও শিরমনি নৌকার ভেতরে আটকা পড়েন।

ঘটনাস্থলে থাকা মোহনগঞ্জ থানার এস আই পিন্টু চন্দ্র দে বলেন, ‘স্টিল বডির নৌকাটিতে ২৫০ বস্তায় ৪৫৬ মণ ধান ছিল। পরে রাত ৩টার দিকে বিকট শব্দে তলা ফেটে ডুবে যায় নৌকাটি।’ নৌকা থেকে বেঁচে যাওয়া শ্রমিক সেলিম মিয়া বলেন, ‘রাতে বৃষ্টি থাকায় আমরা ভেতরে ঘুমাচ্ছিলাম। ৩টার দিকে বিকট শব্দ হয়। শব্দে ঘুম ভেঙে যায়, দেখি নৌকা তলিয়ে যাচ্ছে। তখন যে যার মতো পাড়ে তাড়াহুড়ো করে উঠেছে। তীরে উঠে দেখি শিরমনি নেই।’

ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ডুবুরি দলের প্রধান জমিয়ত আলী জানান, ‘খবর পেয়ে সকাল পৌনে ৯টার দিকে ঘটনাস্থলে এসে উদ্ধার অভিযান শুরু করেছি। দুই দফা নৌকার ভেতরে গিয়ে খোঁজ করে শিরমনিকে পাওয়া যায়নি। উদ্ধার অভিযান চলছে।’

মোহনগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ছাব্বির আহম্মেদ আকুঞ্জি বলেন, ‘খবর পেয়ে আজ সকাল ১০টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। তবে
নিখোঁজ ব্যক্তিসহ নৌকাটি উদ্ধারে ময়মনসিংহ থেকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল উদ্ধার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।’

আরও পড়ুন: ফুলবাড়ীতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান দুই ব্যবসায়িকে অর্থদণ্ডসহ যৌন উত্তেজক সিরাপ ধ্বংস


Notice: Undefined variable: sAddThis in /home/durjoyba/public_html/details.php on line 808