মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০

দুর্জয় বাংলা || Durjoy Bangla

দম্পতির ছবি তুলে হয়রানি ও হুমকি দিয়ে টাকা আদায়, তিন বখাটে আটক

প্রকাশিত: ১৮:৫৮, ১৮ জুন ২০২৩

দম্পতির ছবি তুলে হয়রানি ও হুমকি দিয়ে টাকা আদায়, তিন বখাটে আটক

দম্পতির ছবি তুলে হয়রানি ও হুমকি দিয়ে টাকা আদায়, তিন বখাটে আটক

নেত্রকোনায় শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের বালুর মাঠে ঘুরতে আসা এক দম্পতিকে ছবি তুলে ব্ল্যাকমেইল-হয়রানি ও হুমকি দিয়ে টাকা আদায়ের ঘটনায় তিন বখাটেকে আটক করেছে পুলিশ।

রোববার সকালে তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়। এর আগে শনিবার বিকালে শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের বালুর মাঠ থেকে তাদের আটক করা হয়। 

আটকরা হলেন, নেত্রকোনা শহরের রাজুর বাজার এলাকার মো. মঞ্জু মিয়ার ছেলে মো. রনি মিয়া (১৯), মো. আজিম মিয়ার ছেলে মো. সিমন মিয়া  (২০) ও মো. জীবন মিয়া (২১)। 

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শনিবার বিকেলে এক দম্পতি বিশ্ববিদ্যালয়ের বালুর মাঠে ঘুরতে গেলে দুই যুবক দূর থেকে তাদের ভিডিও ধারণ করে ও ছবি তুলে। পরে ওই ভিডিও দেখিয়ে তাদের ব্ল্যাকমেইল করার চেষ্টা করে। তবে ওই দম্পতি ভিডিওর বিষয়ে পাত্তা না দেওয়ায় তাদের নানাভাবে হয়রানি করা হয়। শেষে আটকে রেখে হুমকি দিয়ে টাকা আদায় করা হয়। এক পর্যায়ে সেখানে উপস্থিত একজন বিষয়টি পুলিশকে জানায়। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত গিয়ে দুই যুবককে আটক করে। এ দৃশ্য দেখে অপর একজন বড় ভাই পরিচয়ে পুলিশের হাত থেকে ছাড়াতে এসে ওই দম্পতিকে গালাগাল করে  ও হুমকি দেয়। উশৃংখল আচরণ করে তাদের ছাড়িয়ে নেওয়ার চেষ্টার করে। পরে তাকেও আটক করা হয়। পরে রাতে ভুক্তভোগী দম্পতি বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করে।

প্রত্যক্ষদর্শী রানা আকন্দ জানায়, ওই দম্পতিকে দূর থেকে ভিডিও ধারন ও ছবি তুলে বখাটেরা হয়রানি করে। অত্যচার করে তাদের জীবন অতিষ্ঠ করে তুলে। এরা একটি প্রতারক চক্র। এরা কয়কটি গ্রুপে ভাগ হয়ে আশপাশে অবস্থান নিয়ে থাকে। একটি গ্রুপকে কেউ প্রতিহত করতে চাইলে তাদের সহায়তায় পাশে থাকা অন্যরা ছুটে আসে। প্রতিদিন অসংখ্য কাপল সেখানে গিয়ে এসব প্রতারকদের হাতে লাঞ্চিত হয়। টাকা পয়সা দিয়ে তাদের হাত থেকে ছাড়া পেতে হয়।  বালুর মাঠে এখন অনেকে ঘুরতে যেতে ভয় পায়। 

নেত্রকোনা মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ লুৎফুল হক বলেন,  খোলামেলা পরিবেশ থাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বালুর মাঠে বিকেলে অনেকে ঘুরতে যায়। অনেক কাপলও ঘুরতে যায়। সেখানে কিছু একটি চক্র তাদের হয়রানি ও ব্ল্যাকমেইল করে টাকায় আদায় করে। এরা একটি চক্র। কাপলদের ভিডিও ধারণ করে হয়রানি ও লাঞ্চিত করে টাকা হাতিয়ে নেয়। বালু মাঠে পুলিশি নজরদারি বাড়ানো হবে। তিনি আরও বলেন, রোববার সকালে তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: মোহনগঞ্জে গাঁজাসহ যুবক আটক


Notice: Undefined variable: sAddThis in /home/durjoyba/public_html/details.php on line 809