মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১

দুর্জয় বাংলা || Durjoy Bangla

প্রতিরক্ষা দেয়াল নির্মাণের দাবি

সাত শহীদের সমাধি ও সড়ক নদীতে বিলীনের আশঙ্কা

প্রকাশিত: ১৭:৩৫, ১৯ জুলাই ২০২৩

সাত শহীদের সমাধি ও সড়ক নদীতে বিলীনের আশঙ্কা

সাত শহীদের সমাধি ও সড়ক নদীতে বিলীনের আশঙ্কা

ছায়াঘেরা মনোরম পরিবেশে নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলার লেংগুরা ইউনিয়নের ফুলবাড়ী সীমান্ত ঘেঁষা গনেশ্বরী নদীর পূর্ব পাড়ে অবস্থিত সাত শহীদের সমাধি। প্রতিদিনই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা পর্যটকেরা সীমান্তের সৌন্দর্য্য উপভোগের পাশাপাশি পরিদর্শন করেন এ সমাধিস্থল। মুহুর্তেই পর্যটকদের মনে নাড়া দেয় মুক্তিযুদ্ধের চেতনা।

সমাধীর সামনে কেউ কেউ দাঁড়িয়ে যান শহীদের শ্রদ্ধা জানাতে। প্রতি বছর ২৬ জুলাই জেলা ও উপজেলা প্রশাসন নানান কর্মসূচির মধ্য দিয়ে স্মরণ করা হয় মুক্তিযুদ্ধে নিহত শহীদদের। কিন্তু গনেশ্বরী নদীর ভাঙন ক্রমশ পূর্ব দিকে তেড়ে আসছে। ফলে সমাধীতে পৌঁছানোর কাঁচা সড়কে ভাঙন ধরেছে। এ ভাঙন দেখে হতাশা প্রকাশ করেছেন পর্যটকেরা।

এ ভাঙন অব্যাহত থাকলে সড়কের পাশাপাশি এক সময় সমাধীস্থল বিলীন হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাই সড়ক ও সমাধীস্থল রক্ষায় টেকসই প্রতিরক্ষা দেয়াল নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় সুশীল সমাজের ব্যক্তিবর্গসহ মুক্তিযোদ্ধারা। 

লেংঙ্গুরা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোশারফ হোসেন বলেন, ৭১ মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত স্থানগুলোের সুরক্ষা অত্যন্ত জরুরি। সরকারের উচিত সাত শহীদের স্মরণে একটি জাদুঘর নির্মাণ করা। সেখানে শহীদদের সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য, তাদের ব্যবহৃত স্মৃতিচিহ্ন সংরক্ষণ করা যেতে পারে। এতে নতুন প্রজন্ম জানতে পারবে, সেই অকুতোভয় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কথা এবং মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতহাস।

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা থেকে ঘুরতে আসা পর্যটক এনামুল হক বলেন, যারা দেশের জন্য জীবন দিলেন তাদের সমাধীস্থল রক্ষায় এখনই কার্যকরী পদক্ষেপ নেওয়া উচিত। যদি নদীর পাড়ে প্রতিরক্ষা দেয়াল নির্মাণ করা হয় তাহলে একদিকে যেমন সড়ক ও সমাধীস্থল রক্ষা পাবে অন্যদিকে স্থানটিও হয়ে উঠবে দৃষ্টিনন্দন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. সাইদুর রহমান ভূইয়া বলেন, প্রতি বছরই বর্ষা মৌসুমে পাহাড়ী ঢল এলেই পানির স্রোতের কারণে ১১৭২ নং সীমান্ত পিলার সংলগ্ন গনেশ্বরী নদীর তীরের প্রায় ১০০ মিটারের কাঁচা রাস্তা পানির চাপে ভেঙে অত্যন্ত সরু হয়ে যাচ্ছে। সময়মতো উদ্যোগ নেওয়া না হলে বিলীন  হয়ে যেতে পারে ওই সমাধিস্থলটি। টেকসই প্রতিরক্ষা দেয়াল নির্মাণ করে নদী ভাঙন থেকে সড়কটি ও সাত শহীদের সমাধিস্থল রক্ষা করার জন্য সংশ্লিষ্টদের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন তিনি।

কলমাকান্দা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক তালুকদার বলেন, ১৯৭১ সালের ২৬ জুলাই নাজিরপুর বাজারে পাকবাহিনীর সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মুখ যুদ্ধ হয়। এতে শহীদ হন নেত্রকোনার ডা. আবদুল আজিজ ও মোহাম্মদ. ফজলুল হক, ময়মনসিংহের মুক্তাগাছার মুহাম্মদ ইয়ার মাহমুদ, ভবতোষ চন্দ্র দাস, দ্বিজেন্দ্র চন্দ্র বিশ্বাস ও মো. নুরুজ্জামান এবং জামালপুরের মো. জামাল উদ্দিন। পরে যুদ্ধে নিহত শহিদদের লেংগুরার ফুলবাড়ি সীমান্তের গনেশ্বরী নদীর পাড়ে ১১৭২নং পিলার সংলগ্ন স্থানে সমাহিত করা হয়। শহিদদের আত্মত্যাগকে স্মরণীয় করে রাখতেই সহযোদ্ধারা নির্মাণ করেন সাত শহিদের সমাধিস্থল। প্রতি বছর ২৬ জুলাই দিনটা ‘ঐতিহাসিক নাজিরপুর দিবস’ হিসেবে পালিত হয়। এদিনে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদের উদ্যোগে নানান কর্মসূচি পালন করেন।

এ ব্যাপারে এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী শুভ্রদেব চক্রবর্তী বলেন, যতটুকু অংশ নদী ভাঙনের কবলে পরেছে সেটুকু অংশ এলজিইডি’র না। লেংগুরা বাজার থেকে সাত শহীদের সমাধিস্থল পর্যন্ত রাস্তাটি সংস্কার ও রাস্তার ঝুকিপূর্ণ বিভিন্ন অংশে গাইড ওয়াল নির্মাণের জন্য প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে।

নেত্রকোনার পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) কার্যালয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সারওয়ার জাহান বলেন, এ বিষয়টি কেউ তাকে জানায়নি, তবে খোঁজ নিয়ে দেখবেন। যদি নদী ভাঙনে সাত শহীদের সমাধিস্থলটি হুমকির মুখে থাকে তাহলে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে দ্রুত এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন: কেন্দুয়ায় রামপুর গরুর হাট রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

শীর্ষ সংবাদ:

ঈদ ও নববর্ষে পদ্মা সেতুতে ২১ কোটি ৪৭ লাখ টাকা টোল আদায়
নতুন বছর অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রেরণা জোগাবে: প্রধানমন্ত্রী
কলমাকান্দায় মোটরসাইকেলের চাকা ফেটে তিনজনের মৃত্যু
র‌্যাব-১৪’র অভিযানে ১৪৫ পিস ইয়াবাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক
সবার সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করুন: প্রধানমন্ত্রী
ঈদের ছুটিতে পর্যটক বরণে প্রস্তুত প্রকৃতি কন্যা জাফলং ও নীল নদ লালাখাল
কেন্দুয়ায় তিন দিনব্যাপী ‘জালাল মেলা’ উদযাপনে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত
ফুলবাড়ীতে ঐতিহ্যবাহী চড়কসহ গ্রামীণ মেলা অনুষ্ঠিত
কেন্দুয়ায় আউশ ধানের বীজ বিতরণ ও মতবিনিময় অনুষ্ঠিত
কলমাকান্দায় দেশীয় অস্ত্রসহ পিতাপুত্র আটক
ঠাকুরগাঁওয়ে গ্রামগঞ্জে জ্বালানি চাহিদা পূরণ করছে গোবরের তৈরি করা লাকড়ি গৃহবধূরা
ফুলবাড়ীতে এসিল্যান্ডের সরকারি মোবাইল ফোন নম্বর ক্লোন চাঁদা দাবি: থানায় জিডি দায়ের
ফুলবাড়ীতে সবজির দাম উর্ধ্বমূখী রাতারাতি দাম বাড়ায় ক্ষুব্ধ ভোক্তা
ধর্মপাশায় সরকারি রাস্তার গাছ কেটে নিলো এক শিক্ষক
সাঈদীর মৃত্যু নিয়ে ফেসবুকে ষ্ট্যাটাস দেয়ায় রামগঞ্জে ছাত্রলীগ নেতা বহিস্কার
বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়ীতে অনশন
মসিকে ১০ কোটি টাকার সড়ক ও ড্রেনের কাজ উদ্বোধন করলেন মেয়র
কলমাকান্দায় নদীর পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
বিলুপ্তির পথে ঐতিহ্যবাহী বাঁশ-বেত শিল্প
বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও প্রাবন্ধিক যতীন সরকারের জন্মদিন উদযাপন
বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ যতীন সরকারের ৮৮তম জন্মদিন আজ
১ বিলিয়ন ডলার নিয়ে এমএলএম mtfe বন্ধ
কলমাকান্দায় পুলিশের কাছে ধরা পড়লো তিন মাদক কারবারি
আটপাড়ায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ১০৩ জন কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা
নকলায় ফাঁসিতে ঝুলে নেশাগ্রস্থ কিশোরের আত্মহত্যা
বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ নুরুল ইসলামের রাজনৈতিক জীবনের ইতিহাস
কলমাকান্দায় আগুনে পুড়ে ২১ দোকানঘর ছাই

Notice: Undefined variable: sAddThis in /home/durjoyba/public_html/details.php on line 809